কোম্পানি সংবাদ পুঁজিবাজার

গোল্ডেন সন ও এএফসি এগ্রো বায়োটেকের লভ্যাংশ ঘোষণা

নিজস্ব প্রতিবেদক: ২০২০ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাববছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে বিনিয়োগকারীদের জন্য লভ্যাংশ ঘোষণা দিয়েছে দুই কোম্পানি। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

গোল্ডেন সন লিমিটেড: ৩০ জুন ২০২০ সমাপ্ত হিসাববছরে বিনিয়োগকারীদের জন্য শুধু সাধারণ বিনিয়োগকারীদের (উদ্যোক্তা বা পরিচালক ব্যতীত) দুই দশমিক ৫০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেবে কোম্পানিটি। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে এক টাকা পাঁচ পয়সা লোকসান এবং শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ২০ টাকা তিন পয়সা। আর শেয়ারপ্রতি নগদ অর্থপ্রবাহ হয়েছে ১০ পয়সা। ঘোষিত লভ্যাংশ বিনিয়োগকারীদের সম্মতিক্রমে অনুমোদনের জন্য আগামী ৩১ ডিসেম্বর বেলা ১১টায় ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) অনুষ্ঠিত হবে। এ জন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ১৫ ডিসেম্বর।

এদিকে গতকাল ডিএসইতে কোম্পানিটির শেয়ারদর ১২ শতাংশ বা এক টাকা ২০ পয়সা বেড়ে প্রতিটি সর্বশেষ ১১ টাকা ২০ পয়সায় হাতবদল হয়, যার সমাপনী দরও ছিল ১১ টাকা ২০ পয়সা। দিনজুড়ে ২৫ লাখ ৪৪ হাজার ১৪টি শেয়ার এক হাজার ১৯৩ বার হাতবদল হয়, যার বাজারদর দুই কোটি ৮০ লাখ ৮০ হাজার টাকা। দিনভর শেয়ারদর ১০ টাকা ৪০ পয়সা  থেকে ১১ টাকা ৭০ পয়সায় হাতবদল হয়। গত এক বছরে শেয়ারদর চার টাকা ৯০ পয়সা থেকে ১২ টাকা ১০ পয়সার মধ্যে ওঠানামা করে।

কোম্পানিটি ২০০৭ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়ে বর্তমানে ‘জেড’ ক্যাটেগরিতে অবস্থান করছে। কোম্পানির ৫০০ কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের বিপরীতে পরিশোধিত মূলধন ১৭১ কোটি ৭৩ লাখ টাকা। রিজার্ভের পরিমাণ ৮১ কোটি ২১ লাখ টাকা। কোম্পানির মোট ১৭ কোটি ১৭ লাখ ২৯ হাজার ৭৭২ শেয়ারের মধ্যে উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের ৩৮ দশমিক ৯৮ শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক ১৮ দশমিক ৯১ শতাংশ এবং বাকি ৪২ দশমিক ১১ শতাংশ শেয়ার রয়েছে সাধারণ বিনিয়োগকারীর কাছে।

এএফসি এগ্রো বায়োটেক লিমিটেড: ৩০ জুন ২০২০ সমাপ্ত হিসাববছরে বিনিয়োগকারীদের জন্য কোনো লভ্যাংশ না দেওয়ার ঘোষণা করেছে কোম্পানিটি। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩২ পয়সা এবং শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ১৭ টাকা ৮৫ পয়সা। আর শেয়ারপ্রতি নগদ অর্থপ্রবাহ হয়েছে দুই টাকা ২৮ পয়সা। ঘোষিত লভ্যাংশ বিনিয়োগকারীদের সম্মতিক্রমে অনুমোদনের জন্য আগামী ৩১ ডিসেম্বর সকাল ১০টায় ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) অনুষ্ঠিত হবে। এ জন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ১৫ ডিসেম্বর।

এদিকে গতকাল ডিএসইতে কোম্পানিটির শেয়ারদর অপরিবর্তিত থেকে প্রতিটি সর্বশেষ ১৭ টাকায় হাতবদল হয়, যার সমাপনী দর ছিল ১৭ টাকা। দিনজুড়ে চারটি শেয়ার একবার হাতবদল হয়। দিনভর শেয়ারদর ১৭ টাকায় হাতবদল হয়। গত এক বছরে শেয়ারদর ১৪ টাকা ২০ পয়সা থেকে ২৮ টাকা ১০ পয়সার মধ্যে ওঠানামা করে।

কোম্পানিটি ২০১৪ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়ে বর্তমানে ‘এ’ ক্যাটেগরিতে অবস্থান করছে। কোম্পানির ৩০০ কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের বিপরীতে পরিশোধিত মূলধন ১১৫ কোটি ২১ লাখ ৬০ হাজার টাকা। রিজার্ভের পরিমাণ ৮৬ কোটি ৭৮ লাখ টাকা। কোম্পানির মোট ১১ কোটি ৫২ লাখ ১৬ হাজার ২০০ শেয়ারের মধ্যে উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের ৩০ দশমিক ২৯ শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক ৩৭ দশমিক ২৯ শতাংশ এবং বাকি ৩২ দশমিক ৪২ শতাংশ শেয়ার রয়েছে সাধারণ বিনিয়োগকারীর কাছে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..