প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

গ্যাসের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে অর্ধদিবস হরতাল আজ

 

নিজস্ব প্রতিবেদক: গ্যাসের দামবৃদ্ধির প্রতিবাদে আজ মঙ্গলবার অর্ধদিবস হরতাল। বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি) ও বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ) এ হরতালের ডাক দেয় গত শুক্রবার। একই দাবিতে একই সময়ে গণতান্ত্রিক বাম মোর্চাও হরতাল পালন করছে। বাম দলগুলোর আজকের এ হরতালে সমর্থন দিয়েছেন মূলধারার বিএনপিসহ অনেকে। তবে আজকের এ হরতালের আওতামুক্ত রয়েছে এসএসসি পরীক্ষার কেন্দ্র ও পরীক্ষার্থীদের যাতায়াত।

অন্যদিকে গতকাল গণশুনানির ফলাফল না মেনে গ্যাসের দামবৃদ্ধির সিদ্ধান্ত অযৌক্তিক বলে দাবি করেছে কনজ্যুমার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব)। এতে শিল্পপণ্যের উৎপাদন খরচ বৃদ্ধি পাবে। ফলে পণ্যের দাম ও বাড়িভাড়া বৃদ্ধি পাবে বলেও মনে করছে ক্যাব। এজন্য সরকারের গ্যাসের দামবৃদ্ধির এ অযৌক্তিক সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসার আসার আহ্বান জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

গতকাল সোমবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে আয়োজিত এক মানববন্ধনে এসব কথা জানায় ক্যাব। এ সময় ক্যাবের সভাপতি গোলাম রহমান, জ্বালানি উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. এম শামসুল আলম, সাধারণ সম্পাদক হুমায়ূন কবীর ভূঁইয়া, কুমিল্লা জেলা কমিটির সভাপতি আলী হাজারীসহ অন্যান্য কর্মকর্তা এবং সাধারণ ভোক্তারা এতে অংশগ্রহণ করেন।

সভাপতির বক্তব্যে গোলাম রহমান বলেন, গ্যাসের দাম বৃদ্ধির কোনো ধরনের যৌক্তিকতা নেই বিইআরসির টেকনিক্যাল কমিটির প্রস্তাব ও গণশুনানিনে ভোক্তাদের সুপারিশ মানা হয়নি। বাসাবাড়িতে চুলাপ্রতি গ্যাসের দাম বাড়ার কারণে বাসাভাড়া বাড়বে। শিল্পোৎপাদনে খরচ বৃদ্ধি পাবে। যার প্রভাব পড়বে পণ্যের ওপর। এতে আমাদের দেশি শিল্পপণ্যের দাম যেমন বাড়বে তেমনি ক্ষতিগ্রস্ত হবে রফতানি। ফলে নি¤œ আয়ের যেসব মানুষ রয়েছে তারা ভোগান্তিতে পড়বে।

গতকাল ওই মানববন্ধনে উপস্থিত সবাই হলুদ পতাকা হাতে নিয়ে গ্যাসের দামবৃদ্ধির পদক্ষেপ জানান। সেই সঙ্গে সব বাসাবাড়ি ও প্রতিষ্ঠানগুলোতে এর প্রতিবাদ জানাতে হলুদ পতাকা টাঙানোর পরামর্শ দেন।

এদিকে গতকাল বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম, সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আবু জাফর আহমেদ এবং বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ-এর সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামানের পাঠানো এক বিবৃতিতে অযৌক্তিকভাবে গ্যাসের দামবৃদ্ধির প্রতিবাদে ডাকা এ হরতালে বিক্ষোভ কর্মসূচি সফল করার জন্য ঢাকাবাসীসহ দেশবাসীর প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানানো হয়।

বিবৃতিতে নেতারা অফিস-আদালত, দোকানপাট, ব্যবসা-বাণিজ্যের কাজকর্ম বেলা ১২টার পর শুরু করার মাধ্যমে এ গণবিরোধী সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবিতে হরতাল পালনের আহ্বান জানিয়েছেন। একই সঙ্গে এসএসসি পরীক্ষার্থী এবং এ পরীক্ষার কাজে সংশ্লিষ্টদের হরতালের আওতামুক্ত রাখা এবং এ পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার ক্ষেত্রে সবাইকে সহযোগিতা করার জন্যও বিবৃতিতে নেতারা আহ্বান জানান। ফায়ার সার্ভিস, অ্যাম্বুুলেন্স, সংবাদপত্র ও প্রচারমাধ্যম, জরুরি বিদ্যুৎ-গ্যাস সংযোগের কাজ, হাসপাতাল ইত্যাদি হরতালের আওতামুক্ত থাকবে বলে বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়।

বিবৃতিতে নেতারা আরও বলেন, জনগণের সমর্থন ছাড়া ক্ষমতায় এসে সরকার জনগণের স্বার্থের বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েছে। লুটেরাদের স্বার্থ রক্ষাকারী সরকার একের পর এক গণবিরোধী নানা পদক্ষেপ ও সিদ্ধান্ত নিচ্ছে। তীব্র আন্দোলন গড়ে তুলে গণবিরোধী সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসতে সরকারকে বাধ্য করা হবে।