প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

গ্রামীণফোনের ইপিএস বেড়েছে ২.১০ টাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক: টেলিযোগাযোগ খাতের কোম্পানি গ্রামীণফোন লিমিটেডের চলতি হিসাববছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে (এপ্রিল-জুন) শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে পাঁচ টাকা ৮৭ পয়সা, যা আগের বছর একই সময় ছিল তিন টাকা ৭৭ পয়সা। অর্থাৎ ইপিএস বেড়েছে দুই টাকা ১০ পয়সা। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জুন ২০১৭ পর্যন্ত ছয় মাসে ইপিএস হয়েছে ১০ টাকা ৭২ পয়সা। এটি আগের বছর একই সময় ছিল সাত টাকা ৯২ পয়সা। ৩০ জুন ২০১৭ পর্যন্ত শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য (এনএভি) ২৩ টাকা ৫৯ পয়সা। এটি  আগের বছরের একই সময় ছিল ২৪ টাকা ৭৪ পয়সা।

চলতি হিসাববছরের প্রথম ছয় মাসের (জানুয়ারি-জুন ’১৭) মুনাফার ওপর ভিত্তি করে ১০৫ শতাংশ নগদ অন্তর্বর্তীকালীন লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। আলোচিত সময়ে গ্রামীণফোন লিমিটেড যে মুনাফা করেছে, তার ৯৮ শতাংশই লভ্যাংশ হিসেবে দিয়ে দিচ্ছে।

অন্তর্বর্তীকালীন লভ্যাংশের জন্য রেকর্ড তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে ২ আগস্ট। অর্থাৎ ওই তারিখ পর্যন্ত যেসব বিনিয়োগকারীর কাছে শেয়ার থাকবে, কেবল তারাই লভ্যাংশ পাওয়ার জন্য যোগ্য হবেন।

‘এ’ ক্যাটাগরির কোম্পানিটি ২০০৯ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। কোম্পানিটি বিনিয়োগকারীদের জন্য ৩১ ডিসেম্বর ২০১৬ পর্যন্ত সমাপ্ত হিসাববছরের আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে ১৭৫ শতাংশ লভ্যাংশ দিয়েছে। এ সময় ইপিএস হয়েছে ১৬ টাকা ৬৮ পয়সা এবং এনএভি ২৪ টাকা ৮৬ পয়সা।