খবর

গ্র্যাজুয়েটদের উদ্যোক্তা বানাতে চাই: শিক্ষামন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক: শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, আমরা শুধু ‘লার্নার’ সৃষ্টি করতে চাই না, যারা শুধু চাকরির জন্য পড়ালেখা করে। আমরা গ্র্যাজুয়েটদের উদ্যোক্তা হিসেবে তৈরি করতে চাই; যাতে তারা অন্যদের জন্য চাকরির সুযোগ সৃষ্টি করতে পারে। গতকাল শনিবার রাজধানীর হোটেল র‌্যাডিসনে প্রথমবারের মতো আয়োজিত ‘১৮তম এশিয়ান ইউনিভার্সিটি প্রেসিডেন্টস ফোরাম-২০১৯’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

বাংলাদেশ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় সমিতির সহযোগিতায় ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি সম্মেলন আয়োজন করে।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আমি বিশ্বাস করি আমাদের অনেক কিছু করার আছে এবং করতে হবে। সায়েন্স, টেকনোলোজি, ইঞ্জিনিয়ারিং এবং ম্যাথমেটিকসের সঙ্গে ‘এ’ যোগ করতে হবে, এ-তে আর্টস। কারণ আর্টস ছাড়া যথাযথভাবে কাজে দেবে না। তিনি বলেন, আমরা চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের কথা বলছি। বর্তমানে আমরা আমাদের শিক্ষার্থীদের ‘লার্নার’ হিসেবে রূপান্তরিত করছি। ‘লার্নার’ শুধু আজকের জন্য না, সারা জীবনের জন্য। কারণ বিশ্ব এখন দ্রুতগতিতে পরিবর্তিত হচ্ছে।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আমরা আজকে ডেমোগ্রাফিক ডিভিডেন্টের (জনসংখ্যাতাত্ত্বিক সুবিধা) কথা বলছি। ডিভিডেন্টের জন্য বিনিয়োগের প্রয়োজন আছে এবং তা অবশ্যই শিক্ষা খাতে হতে হবে। বাংলাদেশের জন্য সেই সুযোগ কিছুটা সংকীর্ণ হয়েছে, কারণ এই ডেমোগ্রাফিক ট্রানজিশন আমাদের জন্য শুরু হয়েছে ১৯৭৫ সালের পরে। আমরা ইতোমধ্যে ৪০ বছর হারিয়েছি। আমাদের হাতে হয়তো আরও ১০ থেকে ১২ বছর সময় আছে যথাযথ বিনিয়োগ করার যাতে আমরা ডেমোগ্রাফিক ডিভিডেন্টের যথাযথ লাভ পেতে পারি।

অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন, তুরস্কের নাগরিক ওয়ার্ল্ড বিজনেস এনজেলস ইনভেস্টমেন্ট ফোরামের (ডব্লিউবিএএফ) চেয়ারম্যান বেইবার্স আলতুনতাস। এতে অন্যান্যের মধ্যে এইউপিএফের পক্ষে দক্ষিণ কোরিয়ার দং সিউ ইউনিভার্সিটির প্রেসিডেন্ট জেককি চ্যাং ও এইউপিএফ-২০১৯ এর আহ্বায়ক ও ডিআইইউর সহ-উপাচার্য এসএম মাহাবুব-ঊল হক মজুমদার প্রমুখ বক্তব্য দেন।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..