প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

গড় আয়ুতে শীর্ষে দক্ষিণ কোরিয়ার নারীরা

শেয়ার বিজ ডেস্ক: বিশ্বে সবচেয়ে বেশি গড় আয়ু দক্ষিণ কোরিয়ার নারীদের। ২০৩০ সালের মধ্যে দক্ষিণ কোরিয়ার নারীদের গড় বয়স হবে ৯০ বছরের  বেশি। সম্প্রতি এক গবেষণায় এ তথ্য উঠে এসেছে। খবর বিবিসির।

ইম্পেরিয়াল কলেজ লন্ডন অ্যান্ড ওয়ার্ল্ড হেলথ অরগানাইজেশন (ডব্লিওএইচও) ৩৫টি শিল্পোন্নত দেশের মানুষের গড় আয়ুর ওপর এ গবেষণা চালিয়েছে।

ওই গবেষণায় ২০৩০ সালের মধ্যে মানুষের গড় আয়ু বাড়বে বলে আশা প্রকাশ করা হয়েছে। এছাড়া বেশিরভাগ দেশেই নারী-পুরুষের গড় আয়ুর ব্যবধানও কমতে পারে। গবেষকরা জানিয়েছেন, বয়স্কদের পেনসন ও যত্ন বাড়িয়ে দেওয়াটা এখন একটি বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

গবেষণা দলের অধ্যাপক মাজিদ ইজ্জাতি জানিয়েছেন, দক্ষিণ কোরিয়ার নাগরিকরা প্রয়োজনীয় অনেক কিছুই পেয়েছে। তারা উপযুক্ত আবাসস্থল পেয়েছে। শিক্ষা, পুষ্টির মতো মৌলিক সুবিধাগুলোও পাচ্ছে। এর ফলে তারা উচ্চমাত্রার স্নায়ুচাপের সঙ্গে ভালোভাবে মানিয়ে নিতে পারছে।

এর আগে জাপান সবচেয়ে দীর্ঘায়ুর দেশ ছিল। কিন্তু শিগগিরই বিশ্বে গড় আয়ুর তালিকায় নিচের দিকে নেমে আসবে দেশটি।

শিল্পোন্নত দেশগুলোর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের গড় আয়ুও তুলনামূলক কমছে। মেক্সিকো ও চিলিও এ তালিকায় নিচের দিকে রয়েছে। এছাড়া ২০৩০ সালের মধ্যে ব্রিটেনের গড় আয়ুও বেড়ে পুরুষ ৮৩ ও নারী ৮৫ বছর হবে। ২০১৫ সালে এটি ছিল পুরুষ ৭৯ ও নারী ৮২।

গবেষণায় দেখা গেছে, পুরুষ ও নারীদের গড় আয়ুর ব্যবধান আগের থেকে কমে আসছে। সাধারণত পুরুষদের গড় আয়ু নারীদের তুলনায় কম হয়।

অধ্যাপক ইজ্জাতি বলেন, ঐতিহ্যগতভাবেই পুরুষরা অস্বাস্থ্যকর জীবনযাপন করে। পুরুষদের অনেকেই ধূমপায়ী ও মদপানে আসক্ত হয়। এছাড়া সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুতেও পুরুষের সংখ্যা বেশি। এসব কারণে নারীদের তুলনায় পুরুষদের আয়ুষ্কাল তুলনামূলক কম হয়।