স্পোর্টস

ঘরের মাঠে হেরে শঙ্কায় রিয়াল

ক্রীড়া ডেস্ক : চ্যাম্পিয়নস লিগের ম্যাচে নিজেদের ঘরের মাঠে ম্যানচেস্টার সিটির কাছে আগে কখনোই হারেনি রিয়াল মাদ্রিদ। তাই গত পরশু ইউরোপসেরার শেষ ষোলোর লড়াইয়ের আগে বেশ ফুরফুরে ছিল সান্তিয়াগো বার্নাব্যুর ক্লাবটি। বল মাঠে গড়ানোর পরও দলটি দারুণ আক্রমণ করে। সুফল হিসেবে বিরতির পরই ইসকোর গোলে এগিয়েও যায়। কিন্তু শেষ মুহূর্তে নিজেদের ভুলে দ্রুত সময়ের মধ্যে দুই গোল হজম করে ২-১ ব্যবধানে হেরে বসে। যে কারণে এখন এ টুর্নামেন্ট থেকে উল্টো ছিটকে যাওয়ার শঙ্কায় পড়েছে জিনেদিন জিদান শিষ্যরা।

সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে হাইভোল্টেজ ম্যাচে শুরু থেকে রক্ষণ জমাট রেখে খেলতে থাকা সিটি প্রথম ভালো সুযোগটি পায় ২১তম মিনিটে। তবে কেভিন ডে ব্রুইনের ডিফেন্সচেরা পাস নিয়ন্ত্রণে নিয়ে গ্যাব্রিয়েল জেসুসের শট ঝাঁপিয়ে পড়ে ফেরান থিবো কর্তোয়া। এদিকে বলের নিয়ন্ত্রণে এগিয়ে থাকলেও ২৯তম মিনিটে প্রথম উল্লেখ করার মতো আক্রমণে যায় রিয়াল। কিন্তু গোলের দেখা মেলেনি। তবে গোলশূন্য প্রথমার্ধের পর গোলের গিঁট খোলে দ্বিতীয়ার্ধে। ৬০তম মিনিটে ইসকোর গোলে এগিয়ে যায় মাদ্রিদের ক্লাবটি। ভিনিসুয়াস জুনিয়রের দুর্দান্ত পাস আড়াআড়ি শটে জালে জড়ান রিয়ালের স্প্যানিশ এই ফরোয়ার্ড।

ম্যাচে ফিরতে অবশ্য মোটেও দেরি করেনি সিটি। ৭৮ মিনিটে কেভিন ডি ব্রুইনের ক্রস থেকে হেডে বল জালে জড়ান গ্যাব্রিয়েল জেসুস। এর কিছুক্ষণ পরই ডি বক্সের ভেতর স্টার্লিংকে ফাউল করেন কার্বাহাল। সফল স্পটকিক নেন ডি ব্রুইন। যে কারণে ২-১ ব্যবধানে লিড নেয় সিটি।

সিটির বিপক্ষে পেছনে পড়লেও শেষদিকে সমতায় ফিরতে উঠেপড়ে লাগে রিয়াল। এর মধ্যেই মস্ত বড় ভুল করে বসেন সার্জিও রামোস। মেজাজ হারিয়ে তিনি দেখেন লালকার্ড। যে কারণে ১০ জনের রিয়াল মাদ্রিদ আর ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি। তাই চলতি লিগে টিকে থাকা নিয়ে শঙ্কায় পড়েছে মাদ্রিদের ক্লাবটি। আগামী ১৭ মার্চ ফিরতি লেগে সিটির মাঠ ইতিহাদ স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হবে রিয়াল।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..