ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদ: সাতক্ষীরার উপকূলীয় এলাকায় আতঙ্ক

প্রতিনিধি, সাতক্ষীরা:  বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদ এর প্রভাবে সাতক্ষীরার নদ-নদীতে স্বাভাবিক জোয়ারে চেয়ে পানির উচ্চতা দেড় থেকে দুই ফুট বৃদ্ধি পেয়েছে। ফলে ক্ষতিগ্রস্ত বেড়িবাঁধ নিয়ে আতঙ্কে রয়েছে উপকূলবাসী।

শনিবার  থেকে  শুরু হওয়া গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টিতে বেড়েছে শীতের প্রকোপ। জোয়ারের পানি বৃদ্ধির ফলে বেড়িবাঁধ ভেঙে প্লাবিত হওয়ার আতঙ্কে উপকূলবাসী। বিশেষ করে আশাশুনি ও শ্যামনগর উপজেলার খোলপেটুয়া ও কপোতাক্ষ নদীর তীরবর্তী বহু পয়েন্টে বেড়িবাঁধের অবস্থা খুবই নাজুক। উচ্চ জোয়ারের চাপে ইয়াসের মতো যে কোন সময় প্লাবিত হওয়ার শঙ্কায় উপকূলবাসি।তবে ঘূর্ণিঝড়ের সতর্কতা সংকেত না বাড়ায় এখনও পর্যন্ত কেউ আশ্রয়কেন্দ্রে যায়নি।

সাতক্ষীরা আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জুলফিকার আলী বলেন, ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদের প্রভাবে দক্ষিণাঞ্চল, বিশেষ করে সাতক্ষীরা অঞ্চলে হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টিপাত হতে পারে। সঙ্গে দমকা ও ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।

ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদ মোকাবেলায় জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে, উপকূলীয় উপজেলা বিশেষ করে শ্যামনগর ও আশাশুনি উপজেলার সকল আশ্রয় কেন্দ্রগুলোকে প্রস্তুত রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন   ❑ পড়েছেন  ৯১৫৪  জন  

সর্বশেষ..