আজকের পত্রিকা দিনের খবর বাণিজ্য সংবাদ শেষ পাতা

ঘোষণা মেশিন-গাড়ির যন্ত্রাংশ, আমদানি হয়েছে ১৯ টন প্রসাধনী

ঈদের সুযোগ কাজে লাগানোর চেষ্টা

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম: ঈদের ছুটির আগ মূহুর্তে সবাই যখন ঘরমুখী তখনও বসে নেই রাজস্ব ফাঁকিবাজরা। কর্মব্যস্ততাকে কাজে লাগিয়ে মিথ্যা ঘোষণার পণ্য খালাসের চেষ্টা করেছে। কিন্তু চৌকস কাস্টমস কর্মকর্তারা তা আটকে দিয়েছে। ঘোষণা ছিল মেশিন ও গাড়ির যন্ত্রাংশ। কিন্তু আমদানি করেছে উচ্চশুল্কের প্রসাধনী।

মিথ্যা ঘোষণার এমন একটি কনটেইনার আটক করেছে চট্টগ্রাম কাস্টম হাউস। শুক্রবার (৩১ জুলাই) কায়িক পরীক্ষা শেষে কনটেইনারটি আটক করা হয়েছে। চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের সহকারী কমিশনার নূর-এ হাসনা সানজিদা অনসূয়া এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, আমদানিকারক রাজধানীর উত্তর বাড্ডার এন বি এম করপোরেশন। প্রতিষ্ঠানটি চীন হতে মেশিন ও গাড়ির যন্ত্রাংশ ঘোষণা দিয়ে একটি পণ্য চালান আমদানি করে। যা খালাসের জন্য ২৯ জুলাই জে জে অ্যাসোসিয়েটস সিএন্ডএফ এর মাধ্যমে বিল অব এন্ট্রি দাখিল করে।

কমিশনারের নির্দেশে কাস্টম হাউসের এআইআর শাখা ৩০ জুলাই কনটেইনারটি আটক করে। শুক্রবার শতভাগ কায়িক পরীক্ষা করা হয়। এতে মেশিন ও গাড়ির যন্ত্রাংশের পরিবর্তে উচ্চ শুল্কের প্রসাধনী যেমন অ্যালভেরা জেল, স্ক্যাব, শ্যাম্পু, হেয়ার জেল, এয়ার ভিটামিন, টুথপেষ্ট প্রভূতি প্রায় ১৯ মেট্রিক টন প্রসাধনী সামগ্রী পাওয়া যায়।

কনটেইনারতে প্রায় ৯০ লাখ টাকার প্রসাধনী সামগ্রী খালাসের অপচেষ্টা করা হয়েছে। ঈদের ছুটির আগ মূহুর্তে কর্ম ব্যস্ততার সুযোগ কাজে লাগিয়ে প্রতিষ্ঠানটি মিথ্যা ঘোষণার মাধ্যমে রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে চালানটি খালাসের অপচেষ্টা করেছে। শুল্ক ফাঁকির বিষয়ে মামলা দায়েরের কার্যক্রম চলমান এবং আর কোন জালিয়াতির ঘটনা ঘটেছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানান সহকারী কমিশনার।

###

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..