সুস্বাস্থ্য

চর্ব্য-চোষ্য-লেহ্য-পেয়: তুলসীতে সমাধান

ঘুম থেকে উঠে তুলসীপাতার গন্ধ শুঁকলে শ্বাসপ্রশ্বাস ভালো থাকে, এর পাতা ও শেকড় দূষিত রক্ত বিশুদ্ধ করে। কথাগুলো যুগ যুগ ধরে মুরব্বিরা বলে আসছেন। একই সঙ্গে বৈজ্ঞানিক গবেষণা বলছে, তুলসী গাছ চমৎকার একটি প্রাকৃতিক অ্যান্টিসেপটিক। এর নেই কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া। এটি খেতে বা সেবনে বিশেষ কোনো সতর্কতারও প্রয়োজন নেই। তাই আসুন, জেনে নিই এর কিছু গুণ।
# কাশি হয়ে থাকলে তুলসীপাতা ও আদা পিষে মধুর সঙ্গে মিশিয়ে খান। এভাবে অল্প কয়েক দিন খেয়ে দেখুন, কাশি দূর হবে। বাড়তি হিসেবে পেটব্যথাও পালাবে। যেসব শিশু সহজে সর্দি-কাশিতে আক্রান্ত হয়, তাদের কিছুদিন সকালে খালি পেটে দুটি তুলসীপাতা পিষে মধুর সঙ্গে খাওয়াতে থাকুন, এতে সর্দি প্রবণতা কমে যাবে। প্রায় সব শিশু বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকই মা-বাবাদের এ পরামর্শ দিয়ে থাকেন
# জ্বর হলে তুলসীপাতা, গোলমরিচ ও মিছরি একসঙ্গে পানিতে সিদ্ধ করে পান করুন। জ্বর সেরে যাবে। আর ডেঙ্গুজ্বর থেকে মুক্তি পেতে তুলসীর কচিপাতা গরম পানিতে ফুটিয়ে খাবেন। ডেঙ্গুজ্বরে উপকার পাবেন
# ম্যালেরিয়ার প্রতিষেধক হিসেবে তুলসীপাতার রস বেশ উপকারী। ম্যালেরিয়ায় আক্রান্ত হলে প্রতিদিন সকালে গোলমরিচের সঙ্গে তুলসীপাতার রস খেতে থাকুন। তাছাড়া তুলসীপাতা ও শিকড়ের ক্বাথ ম্যালেরিয়া জ্বর কমাতে সহায়তা করে
# পরিমাণমতো তুলসীপাতার রসে লবণ মিশিয়ে দাদে লাগালে উপশম হয়
# শরীরের কোনো অংশ পুড়ে গেছে? তাহলে তুলসীপাতার রস নারকেল তেলের সঙ্গে মিশিয়ে পোড়াস্থানে লাগাতে পারেন। এতে জ্বালা কমে যাবে এবং দ্রুত শুকিয়ে যাবে। সেখানে কোনো দাগও থাকবে না
# ঘা টানছে না? তাহলে তুলসীপাতা ও ফিটকিরি একসঙ্গে পিষে ঘা’র স্থানে লাগান। তাড়াতাড়ি শুকিয়ে যাবে
# বসন্ত, হাম প্রভৃতি অসুখে ঠিকমতো গুটি বের না হলে তুলসীপাতার রস দিনে তিন থেকে চারবার খাবেন, গুটি তাড়াতাড়ি বের হয়ে আসবে
# ঘামাচি কিংবা চুলকানি থেকে রক্ষা পেতে এক উত্তম দাওয়াই তুলসীপাতা। প্রয়োজনমত তুলসীপাতার সঙ্গে সমপরিমাণ দুর্বাঘাসের ডগা পিষে আক্রান্ত স্থানে লাগান। তিন থেকে পাঁচ দিনে ঘামাচি, চুলকানি পালাবে
# কোনো বিষাক্ত কীটপতঙ্গ, যেমন ভীমরুল, বিছা, বোলতা প্রভৃতি কামড়ে থাকলে সেখানে তুলসীপাতার রস একটু গরম করে লাগাতে পারেন। জ্বালা-যন্ত্রণা কমে যাবে
# তুলসী হজমশক্তি বাড়ায়। তুলসীপাতার রস ও লেবুর রস মিশিয়ে খেলে কৃমি দূর হয়
# মুখের দুর্গন্ধ নিয়ে অস্বস্তিতে রয়েছেন? এ দুর্গন্ধ দূর করতে মুখে তুলসীপাতা রাখতে পারেন। অথবা প্রতিদিন সময় করে চার থেকে পাঁচবার তুলসীপাতা চিবাতে পারেন
# ত্বকের রোশনাই বাড়াতে কিংবা বলিরেখা, ব্রণ দূর করতে তুলসীপাতা বেটে মুখে লাগান
# খেতে পারেন তুলসী চা। এটি কফ-কাশি, শ্বাসকষ্ট ও হাঁপানি ভালো করে। শারীরিক ও মানসিক অবসাদ দূর করে। পাশাপাশি মস্তিষ্কে অক্সিজেনের সরবরাহ বাড়িয়ে দেয়। এ চা রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।

সর্বশেষ..