সুস্বাস্থ্য

চর্ব্য-চোষ্য-লেহ্য-পেয়: স্বাস্থ্যের যত্নে কেশর

স্বাস্থ্যোপকারী ফল কেশরে রয়েছে পর্যাপ্ত নিউট্রিয়েন্টস। রয়েছে আরও গুণাগুণ। শারীরিক বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে ওষুধের মতো কাজ করে ফলটি।
এনার্জি বাড়ায়: সারা দিন পরিশ্রমের ফলে শরীরের এনার্জি কমে যায়। এ এনার্জি ফিরিয়ে আনতে সাহায্য করবে কেশর। কারণ, এটি রক্ত সঞ্চালন উন্নত করে। সে সঙ্গে অক্সিজেনকে শরীরের সবদিকে ছড়িয়ে দিতে সাহায্য করে। ফলে এনার্জি লেভেল একদম ঠিকঠাক রাখে।
ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখে: ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ রাখে কেশর। কারণ, কেশরে আছে যথেষ্ট পরিমাণে ম্যাঙ্গানিজ। এটি সুন্দরভাবে ব্লাড সুগার লেভেলকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে। তাই ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য এটি খুবই উপকারী।
অ্যানিমিয়ার সমস্যা দূর করে: শরীরে রক্তের অভাব দেখা দিলে কেশর খেতে পারেন। এতে আছে প্রচুর পরিমাণ আয়রন, যা শরীরে প্রয়োজনীয় হিমোগ্লোবিনের জোগান দেয় এবং অ্যানিমিয়ার মতো সমস্যা থেকে দূরে থাকতে সাহায্য করে। তাই শরীরে রক্তের পরিমাণ ঠিক রাখতে কেশর খাওয়া জরুরি।
নার্ভ সিস্টেমকে ঠিক রাখে: কেশরে রয়েছে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন বি-৬, যা খুব কম ফল বা সবজিতে পাওয়া যায়। এ ভিটামিন শরীরের নার্ভ সিস্টেমকে ঠিক রাখে। শুধু নার্ভ সিস্টেমই নয়, শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বহুগুণে বাড়িয়ে দেয়।
হজমের সমস্যা দূর করে: হজমের সমস্যা দূর করতেও কেশর বেশ উপকারী। দ্রুত খাবার হজম করতে সাহায্য করে। অনেক সময় পেট ব্যথা কমাতে সাহায্য করে। এছাড়া গ্যাস্ট্রিক ও আলসার থেকেও আপনাকে দূরে রাখতে সক্ষম।
রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখে: কেশরে রয়েছে প্রচুর পরিমাণ পটাশিয়াম। এ উপাদানটি রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে বেশ সহায়ক। ফলে হার্টও থাকে সুস্থ। উচ্চ রক্তচাপ হার্টের জন্য একদম ভালো নয়। তাই হার্টকে সুস্থ রাখতে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখুন কেশর খেয়ে।
মন ভালো রাখে: দেহের সঙ্গে মনকে ভালো রাখে কেশর। অনেক সময় বিভিন্ন কারণে দুশ্চিন্তা হয়। এ সময় দুধ ও কেশর খেতে পারেন। মন ভালো রাখবে। অন্তঃসত্ত্বাদের মন ও শরীর ভালো রাখতে কেশর খাওয়া জরুরি।

সর্বশেষ..