প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

চলতি বছর ৮২ লাখ গাড়ি বিক্রির লক্ষ্য হুন্দাই ও কিয়ার

 

শেয়ার বিজ ডেস্ক: হুন্দাই মোটর করপোরেশন ও কিয়া মোটরস একত্রে ২০১৭ সালে বিশ্বব্যাপী আট দশমিক ২৫ মিলিয়ন গাড়ি বিক্রির লক্ষ্য নিয়েছে। এক বিবৃতিতে এ লক্ষ্যমাত্রার কথা জানায় প্রতিষ্ঠান দুটি। খবর রয়টার্স।

দক্ষিণ কোরিয়ার গাড়ি নির্মাণকারী কোম্পানিগুলোর ২০১৬ সালের বিক্রির চূড়ান্ত চিত্রে দেখা যায়, গত বছর কোম্পানি দুটি আট দশমিক ১৩ মিলিয়ন গাড়ি বিক্রি করেছিল। অর্থাৎ নতুন বছরে আগের বছরের তুলনায় গাড়ি বিক্রির লক্ষ্যমাত্রা কিছুটা বেশি। প্রতিবেদন অনুযায়ী, উদীয়মান বাজারগুলোয় দুর্বল চাহিদার কারণে গত বছর গাড়ি বিক্রির লক্ষ্যমাত্রা পূরণ হয়নি।

২০১৭ সালে হুন্দাই মোটর পাঁচ দশমিক শূন্য আট মিলিয়ন গাড়ি বিক্রির লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে। আর কিয়া মোটরস লক্ষ্য নিয়েছে তিন দশমিক ১৭ মিলিয়ন গাড়ি বিক্রির।

গবেষণা প্রতিষ্ঠান হাই ইনভেস্ট অ্যান্ড সিকিউরিটিজের বিশ্লেষক কো তাই বং বলেন, ২০১৭ সালের লক্ষ্যমাত্রা আগের বছরের তুলনায় কিছুটা বেশি। সাম্প্রতিক বছরগুলোয় চলমান হতাশা কাটিয়ে নতুন বছরে নতুন মডেলের গাড়িগুলো লক্ষ্য পূরণে বড় ভূমিকা রাখবে।

রাশিয়ার মতো উদীয়মান বাজারগুলো ইতোমধ্যে ভালো সফলতা দেখিয়েছে। পাশাপাশি হুন্দাই ও কিয়া মোটরসের যুক্তরাষ্ট্র এবং চীনে গাড়ি সরবরাহ বাড়ছে। ফলে চলতি বছর গাড়ি বিক্রি বাড়বে বলে প্রত্যাশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

বিশ্ববাজারে গাড়ি বিক্রির র‌্যাংকিংয়ে একত্রে পঞ্চম অবস্থানে থাকা হুন্দাই মোটর ও কিয়া মোটরস চলতি বছর চীন এবং মেক্সিকোতে তাদের শক্তি বাড়াতে চাচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রসহ বাজারগুলোয় তুলনামূলক শ্লথগতি থাকায় এখানে জোর দেবে প্রতিষ্ঠান দুটি।

হুন্দাই মোটর গ্রুপের চেয়াম্যান চাং মং কো কোম্পানিটির কর্মীদের উদ্দেশে বলেন, বিশ্বঅর্থনীতিতে শ্লথ প্রবৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে, তাই বাণিজ্য সংরক্ষণবাদ ও গাড়ি শিল্পের প্রতিযোগিতা বেড়ে যাবে। এতে আগের চেয়ে অনিশ্চয়তা আরও বাড়বে। এক্ষেত্রে আমাদের সতর্ক থাকতে হবে।

হুন্দাই মোটরের গত বছর চতুর্থবারের মতো বার্ষিক মুনাফা কমেছে। উদীয়মান বাজারে দুর্বল চাহিদা ও উৎপাদনে ব্যাঘাত ঘটায় এমন হয়েছে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

কিয়া মোটরসের ভাইস চেয়ারম্যান হ্যাংক লি বলেন, ২০১৬ সালে বিক্রির লক্ষ্যমাত্রা পূরণে ব্যর্থ হলেও চলতি বছর গাড়ি নির্মাণকারী কোম্পানিগুলোর বিক্রি প্রবৃদ্ধি ঘুরে দাঁড়ানোর সম্ভাবনা রয়েছে।

বকেয়া মজুরির দাবিতে সম্প্রতি হুন্দাই মোটর, কিয়া মোটরস এবং জিএম কোরিয়ার শ্রমিকদের একটি অংশ বিদায়ী বছরে বেশ কয়েকবার ধর্মঘট পালন করেছে। হুন্দাই মোটরের ইতিহাসে গত ১২ বছরে এমন শ্রমিক অসন্তোষ হয়নি। ওই সময় দেড় লাখ কর্মী কর্মবিরতি দিয়ে রাস্তায় নেমে এসেছিলেন। এই সর্বাত্মক ধর্মঘটের কারণে উৎপাদন সাময়িক বন্ধ হয়ে যাওয়ায় কোম্পানির বিক্রির লক্ষ্যমাত্রা অর্জন চরম অনিশ্চয়তার মুখে পড়ে। কোরিয়াতেই সবচেয়ে বেশি গাড়ি উৎপাদন করে কোম্পানিটি। গত বছর তাদের মোট বিক্রীত যানবাহনের প্রায় ৪০ শতাংশ উৎপাদন করেছে দেশেই।

শ্রমিক ধর্মঘটের কারণে এসব কোম্পানিতে উৎপাদন কম ছিল। ফলে গাড়ি রফতানিতে নেতিবাচক প্রভাব পড়ে। সম্প্রতি শ্রমিকদের সঙ্গে সমঝোতায় গাড়ি রফতানি আবার ঘুরে দাঁড়াচ্ছে।