আজকের পত্রিকা খবর সর্বশেষ সংবাদ

চিকিৎসক মঈনের মৃত্যুতে কাস্টমস-ভ্যাট-ট্যাকসেশন অ্যাসোসিয়েশনের শোক

নিজস্ব প্রতিবেদক: চিকিৎসক মঈন উদ্দিনের মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন বিসিএস (কাস্টমস অ্যান্ড ভ্যাট) অ্যাসোসিয়েশন ও বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (ট্যাকসেশন) অ্যাসোসিয়েশন। বুধবার (১৫ এপ্রিল) পৃথক বিজ্ঞপ্তিতে এ শোক জানানো হয়েছে। ডা. মঈন উদ্দিন সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মেডিসিনের সহকারী অধ্যাপক ছিলেন।

করোনায় আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার (১৫ এপ্রিল) ভোরে রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। তিনি সিলেটে করোনা যুদ্ধে প্রথম সারির যোদ্ধা ছিলেন এবং দেশে করোনায় মৃত্যুবরণকারী প্রথম চিকিৎসক।

বিসিএস (কাস্টমস অ্যান্ড ভ্যাট) অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি খন্দকার মুহাম্মদ আমিনুর রহমান ও মহাসচিব সৈয়দ মুসফিকুর রহমান সই করা শোক বার্তা দেওয়া হয়। যাতে বলা, অত্যন্ত দু:খ ভারাক্রান্ত হৃদয়ে জানানো যাচ্ছে যে, প্রাণঘাতী করোনা প্রতিরোধের সম্মুখযোদ্ধা হিসেবে দেশে চিকিৎসকদের মধ্যে কোভিড-১৯ ভাইরাস আক্রান্ত হয়ে ডা. মঈন উদ্দিনই প্রথম শাহাদাৎ বরণ করলেন।

আরো বলা হয়, বিসিএস (স্বাস্থ্য ক্যাডারের ২২তম ব্যাচের চিকিৎসা সেবায় নিবেদিত প্রাণ এ বীর কর্মকর্তার অকাল অ্যাসোসিয়েশনের সদস্যরা গভীর শোক ও দু:খ প্রকাশ করছে। এবং তার অসামান্য অবদান গভীর শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করছে। একজন তরুণ চিকিৎসক হয়েও তিনি নিজের জীবন দিয়ে আমাদের দেখিয়ে গেছেন কিভাবে জীবনের মায়াকে তুচ্ছ করে নি:স্বার্থভাবে দায়িত্ববোধে উজ্জীবিত থাকা যায়। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী ও দুই পুত্র সন্তানসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

বলা হয়, বিসিএস (কাস্টমস অ্যান্ড ভ্যাট) অ্যাসোসিয়েশন মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা ও সহমর্মিতা জ্ঞাপন করছে। পরম করুণাময় মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীন যেন তাকে জান্নাতবাসী করেন। এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারকে এ গভীর শোক সহ্য করার শক্তি দেন।

বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (ট্যাকসেশন) অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মো. রেজাউল করিম চৌধুরী ও মহাসচিব মোহাম্মদ ফজলে আহাদ কায়ছার সই করা শোক বার্তা দেওয়া হয়। যাতে বলা হয়, ডা. মঈন উদ্দিন ছিলেন সিলেট করোনা যুদ্ধে প্রথম সারির যোদ্ধা। তিনি নিজের জীবনের মায়া ত্যাগ করে চিকিৎসা সেবায় ব্রত ছিলেন। তার মৃত্যুতে বাংলাদেশ একজন জনসেবককে হারালো।

আরো বলা হয়, ডা. মঈন উদ্দিনের মৃত্যুতে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (ট্যাকসেশন) অ্যাসোসিয়েশন গভীর শোক প্রকাশ করছে এবং তার বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করছে। অ্যাসোসিয়েশন শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছে।

আরো পড়ুনদেশে করোনায় প্রথম এক চিকিৎসকের মৃত্যু

পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে কোভিড-১৯ আক্রান্ত হন মানবিক চিকিৎসক মঈন। গত ৫ এপ্রিল তার করোনা পজিটিভ সনাক্ত হয়। অবস্থায় অবনতি ঘটলে ৭ এপ্রিল তাকে সিলেট নগরীর শহীদ শামসুদ্দিন হাসপাতালে করোনা ইউনিটে আইসোলেশনে রাখা হয়। সেখান থেকে পরবর্তীতে পরিবারের সিদ্বান্ত অনুযায়ী তাকে ঢাকায় স্থানান্তর করা হয়। করোনার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার পর চিকিৎসকের পরিবারসহ নগরীর হাউজিং এস্টেট এলাকা লকডাউন ঘোষণা করা হয়। মৃত্যুকালে দুই শিশু সন্তান ও স্ত্রীকে রেখে গেছেন ডা. মঈন।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..