চিপ সংকটে কমেছে স্মার্টফোন বিক্রি

বছরের তৃতীয় প্রান্তিক

শেয়ার বিজ ডেস্ক: বৈশ্বিক চিপ সংকটে উৎপাদন কার্যক্রম চালিয়ে যেতে হিমশিম খাচ্ছে প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলো। চিপ ঘাটতির কারণে টয়োটা, এনভিডিয়া ও জেনারেল মোটর্সের মতো গাড়িনির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো বিভিন্ন  প্লান্টে উৎপাদন সীমিত করেছে। এখন চিপ সংকটে পড়ছে স্মার্টফোন নির্মাতারাও। ফলে বছরের তৃতীয় প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর) স্মার্টফোন বিক্রি হ্রাস পেয়েছে। খবর: রয়টার্স।

বাজার বিশ্লেষক ক্যানালিস বলছে, আগের বছরের একই সময়রে তুলনায় চলতি বছরের তৃতীয় প্রান্তিকে ফোন বিক্রি কমেছে ছয় শতাংশ। এর অনেকটার জন্যই দায়ী উপাদান সংকট। এ সংকটের কারণে ভোক্তাদের চাহিদা পুরোপুরি পূরণ করা সম্ভব হচ্ছে না প্রতিষ্ঠানগুলোর জন্য।

প্রাথমিক অনুমান অনুসারে, ২০২১ সালের তৃতীয় প্রান্তিকে সবচেয়ে বেশি ডিভাইস বিক্রি করেছে স্যামসাং, বাজারের ২৩ শতাংশই নিজের দখলে রেখেছে। এ হিসেবে এক বছর আগের তুলনায় খারাপ অবস্থায় নেই দক্ষিণ কোরিয়ান প্রতিষ্ঠানটি।

স্মার্টফোন বাজারের দ্বিতীয় স্থানটি দখলে নিয়েছে অ্যাপল। বাজার শেয়ার দখলে বছরপ্রতি তিন শতাংশ পয়েন্ট বেড়েছে প্রতিষ্ঠানটির। তালিকার শীর্ষ পাঁচের বাকি তিনে রয়েছে চীনা ফোন নির্মাতা শাওমি, ভিভো ও অপো। বাজারের ৩৪ শতাংশ শেয়ার দখলে রেখেছে প্রতিষ্ঠান তিনটি।

বাজার বিশ্লেষণে ওয়ানপ্লাসের বিক্রি অপোর অধীনে ধরেছে ক্যানালিস। কিন্তু অপোর ‘সিস্টার কনসার্ন’ ভিভোর ক্ষেত্রে তা করেনি। তাদের বিক্রি আলাদাই ধরেছে। তিনটি প্রতিষ্ঠানই চীনের বিবিকে ইলেকট্রনিক্সের মালিকানাধীন। সেদিক থেকে বিচার করলে, স্মার্টফোন উৎপাদনে স্যামসাংয়ের পরেই রয়েছে চীনা এ প্রতিষ্ঠানটি।

ক্যানালিসের প্রধান বিশ্লেষক বেন স্ট্যানটন বলেন, চিপসেট সংকট অবশেষে চলে এসেছে। স্মার্টফোন শিল্প সর্বোচ্চ উৎপাদনের জন্য যতটা সম্ভব করছে। সমস্যা হচ্ছে সরবরাহ সংকট ২০২২ সালেও থাকবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন   ❑ পড়েছেন  ৯২  জন  

সর্বশেষ..