প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

চুনারুঘাটে পাহাড়ধসে ঘরবাড়ি বিলীন

শেয়ার বিজ প্রতিনিধি, হবিগঞ্জ: নিম্নচাপের কারণে টানা তিন দিনের বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলার সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানের পাশে ত্রিপুরা পল্লির তিনটি ঘর ভেসে গেছে। পল্লির অবশিষ্ট পরিবার এবং পল্লিতে যাওয়ার ফুটব্রিজটিও রয়েছে ভাঙনের মুখে।

গত কয়েক দিনের টানা বর্ষণে ওই পল্লির উমেশ সাঁওতাল, জগৎ সাঁওতাল ও বকুল তন্ত বাইয়ের মূল্যবান মালামালসহ বাড়িঘর ছড়ার পানিতে ভেসে যায়। তবে এতে কোনো প্রাণহানির ঘটনা ঘটেনি। তবে বর্তমানে সাতছড়ির সম্পূর্ণ টিপরা পল্লিটি হুমকির মুখে রয়েছে। যেকোনো সময়ে ভাঙন আরও বড় হতে পারে। বর্তমানে এখানে বসবাসরত ২৪টি টিপরা পরিবারের সদস্যরা পাহাড়ধসের আশঙ্কার মধ্য দিয়ে দিন কাটাচ্ছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, ধ্বংস হয়ে যাওয়া বাড়িঘরের অংশবিশেষ পাহাড়ের পাশে ঝুলে রয়েছে। পরিবার তিনটিকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে এবং তাদের আর্থিক সহায়তা দেওয়া হয়েছে।

এদিকে পাহাড়ি ঢলে উদ্যানের ভেতরে ছড়ার পানিতে ৭০-৮০ ফুট পাহাড় ধসে পড়ে। এতে মূল উদ্যানের ফটক থেকে ওয়াচ টাওয়ার যাওয়ার পথ ভেসে গেছে। এ অবস্থায় কর্তৃপক্ষ ট্রেইলে ভ্রমণে কিছুটা সতর্কতা অবলম্বন করতে বলেছে।

সাতছড়ি টিপরা পল্লির হেডম্যান চিত্ত দেব বর্মা জানান, গত জুন মাসে প্রবল বৃষ্টিপাতে টিপরা পল্লির পার্শ্ববর্তী ছড়ায় বন্যার পানির প্রবল চাপে পাহাড়ে ভাঙন দেখা দেয়। এ সময় তিনটি বসতবাড়ি ভেঙে যায়। বাকি পল্লিও হুমকির মুখে রয়েছে।

সাতছড়ি রেঞ্জ কর্মকর্তা মাহমুদ হোসেন জানান, দ্রুত এ ট্রেইল মেরামত এবং ট্রেইল রক্ষায় ছড়ার পাশে গাইড ওয়াল নির্মাণসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে বালিভর্তি বস্তা দ্বারা ট্রেইল রক্ষার কাজ শুরু হয়েছে।