সারা বাংলা

চুয়াডাঙ্গায় কোনো পরিবার গৃহহীন থাকবে না: সোলায়মান জোয়াদ্দার

প্রতিনিধি, চুয়াডাঙ্গা : চুয়াডাঙ্গা এক আসনের সংসদ সদস্য সোলায়মান হক জোয়াদ্দার বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে পর্যাক্রমে গৃহ নির্মাণ করে দিচ্ছে সরকার। দেশে আর কোনো পরিবার গৃহহীন থাকবে না। চুয়াডাঙ্গায়ও কোনো পরিবার গৃহহীন থাকবে না। গতকাল শুক্রবার চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলায় হাতিকাটা আবাসনে মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে ভ‚মিহীন ও গৃহহীনদের ঘর নির্মাণকাজের অগ্রগতি পরিদর্শনকালে এ কথা বলেন তিনি।

সংসদ সদস্য বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আমাদের শুধু স্বাধীনতা দেননি, দেশের জনসাধারণের জন্য সুখীসমৃদ্ধ সোনার বাংলা গড়ার কাজ শুরু করেছিলেন। কিন্তু ৭১ সালের পরাজিত শক্তি বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারকে ৭৫-এর কালরাতে হত্যা করে।

তিনি বলেন, পাকিস্তান শাসনামলে ২৪ বছরের মধ্যে সাড়ে ১৩ বছর জেল খেটেছেন বঙ্গবন্ধু। তিনি বেঁচে থাকলে অনেক আগেই এ দেশ উন্নত দেশে পরিণত হতো। বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত কাজ সম্পন্ন করতে কার্যকর পরিকল্পনা প্রণয়ন করে যাচ্ছেন তার সুযোগ্য কন্যা শেখ হাসিনা। 

তিনি বলেন, শেখ হাসিনা সারা দেশের ন্যায় পর্যায়ক্রমে চুয়াডাঙ্গায় ১১৩১ পরিবারকে ভ‚মিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে পুনর্বাসিত করার কার্যক্রম শুরু করেছেন। তার মধ্যে ১৩৪টি  ঘর ২০ জানুয়ারির মধ্যে ভ‚মিহীন ও গৃহহীনদের মধ্যে হস্তান্তর করা হবে।

মাথাপিছু ঘরপ্রতি এক লাখ ৭১ হাজার টাকা খরচ করে ঘর নির্মাণ করা হচ্ছে। এতে ১৩৪টি ঘরে খরচ পড়ছে ২২ কোটি ৯১ লাখ চার হাজার টাকা। এর মধ্যে সদর উপজেলায় ৩৪টি, আলমডাঙ্গা উপজেলায় ৫০টি, দামুড়হুদা উপজেলায় ৩২টি ও জীবননগর উপজেলায় ১৮টি  ঘর রয়েছে।

চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার বলেন, মুজিব শতবার্ষিকীতে প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা দিয়েছেন দেশে কোনো ভ‚মিহীন ও গৃহহীন কেউ থাকবে না। এ উপলক্ষে প্রাথমিকভাবে আমরা ১১৩১ জনের বাছাই করেছি। তার মধ্যে ১৩৪ ভ‚মিহীন ও গৃহহীন পরিবারের  মধ্যে  ২০ জানুয়ারি মধ্যে  ঘর হস্তান্তর হবে। বাকিরা পর্যায়ক্রমে ঘর ও জমি পাবেন।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..