শেষ পাতা

চেক ডিজঅনার মামলায় সুপ্রিম কোর্টের রায়

নিজস্ব প্রতিবেদক: চেক ডিজঅনার মামলায় যুগান্তকারী রায় দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। রায়ে বলা হয়েছে, এনআই অ্যাক্টের ৪৩ ধারা অনুযায়ী, ‘কনসিডারেশনে’ চেক দেওয়া হয়েছিল, সেই ‘কনসিডারেশন’ পূরণ না হলে বা কোনো ‘কনসিডারেশন’ না থাকলে চেকদাতার কোনো দায়বদ্ধতা নেই। এ-সংক্রান্ত এক আপিল আবেদন নিষ্পত্তি করে প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন আপিল আদালত গত মঙ্গলবার রায় ঘোষণা করেন।

আদালতে বাদী পক্ষে ছিলেন সিনিয়র অ্যাডভোকেট মনসুরুল হক চৌধুরী ও ব্যারিস্টার চৌধুরী মুর্শেদ কামাল টিপু। আর আসামি পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ ও সিনিয়র অ্যাডভোকেট এম আমিন উদ্দিন।

রায়ের বিষয়টি নিয়ে ব্যারিস্টার চৌধুরী মুর্শেদ কামাল টিপু বলেন, রায়ে চেক ইস্যুর অন্তর্নিহিত উদ্দেশ্য প্রমাণসাপেক্ষে আদেশ দেওয়া হয়েছে, যা নজির হিসেবে ডিএলআরে স্থান পাবে।

তিনি আরও বলেন, ২০০০ সালে এনআই অ্যাক্ট সংশোধন করা হয়, যাতে আগের আইনে ১৩৮ ধারায় সংযুক্ত ‘দেনা বা দায়দায়িত্ব পরিশোধের জন্য’ শব্দগুলো কর্তন করা হয়। ফলে নতুন আইনে এতদিন বাদী পক্ষে চেকদাতার কাছে তার পাওনা প্রমাণ করার দরকার হতো না এবং সেই পাওনা পরিশোধের জন্যই যে চেক দিয়েছিল, তা প্রমাণ করার দরকার ছিল না। আপিল বিভাগের রায়ের ফলে বাদীকে প্রমাণ করতে হবে কী কনসিডারেশনে চেকদাতা চেক ইস্যু করেছিল এবং সেই কনসিডারেশন ফেল করেনি, অর্থাৎ সত্যিই বিবাদীর কাছে বাদীর পাওনা আছে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন
ট্যাগ »

সর্বশেষ..