চোরাচালানের ‌‘ব্যান্ডেজ কৌশল’, বেরসিক কাস্টমস

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রতিনিয়ত চোরাচালানের কৌশল পাল্টাচ্ছে চোরাকারবারিরা। তবে চোরাচাকারবারিদের কৌশল ব্যর্থ করতে বসে নেই কাস্টমস। হাত গেছে, তাতে ব্যান্ডেজ করা হয়েছে-এমন অজুহাত ভারত ফেরত এক যাত্রীর। আর সেই ব্যান্ডেজের মধ্যে করে কৌশলে দামি মোবাইল নিয়ে আসা হচ্ছে। তবে চৌকস আর বেরসিক কাস্টমস সেই ব্যান্ডেজ তল্লাশি করে পেয়েছেন ১৫টি মোবাইল। আজ সোমবার (১৮ অক্টোবর) বেনাপোল কাস্টম হাউসের চেকপোষ্টে মোহাম্মদ সানা উল্যাহ নামে যাত্রীর হাতের ব্যান্ডেজ থেকে এসব ফোন জব্দ করা হয়। বেনাপোল কাস্টম হাউসের যুগ্ম কমিশনার আবদুর রশিদ এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানিয়েছেন, সোমবার সন্ধ্যায় পাসপোর্ট যাত্রী সানা উল্যাহ কাস্টমস ইমিগ্রেশনের কার্যক্রম শেষ করে বের হয়ে হওয়ার পর তার হাতে ব্যান্ডেজ দেখে তাদের সন্দেহ হয়। এরপর তাকে তল্লাশি করে ওই ব্যান্ডেজ এর মধ্যে থেকে ১৫টি মূল্যবান মোবাইল সেট জব্দ করে কাস্টমস কর্মকর্তারা। এসময় তার ল্যাগেজ থেকে জিন্স প্যান্ট, লেহেঙ্গা, জুতা, স্যান্ডেল, গেঞ্জি, কসমেটিকসহ বিভিন্ন পণ্যও উদ্ধার করা হয়। আটক মোবাইলের মূল্য প্রায় ৭ লাখ টাকা। এ রকম অভিনব পদ্ধতিতে পণ্য পাচার করা সাধারণত দেখা যায় না। এ ব্যাপারে কাস্টমস আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। যাত্রীর বাড়ি চট্রগ্রাম জেলার সাতকানিয়া থানার সামিয়া পাড়া এলাকায়।


সর্বশেষ..