আজকের পত্রিকা স্পোর্টস

জন্মদিনে ‘বান্টু’কে শুভেচ্ছা মাশরাফির

ক্রীড়া প্রতিবেদক: ছোট মরিচে ঝাল বেশি। এ প্রবাদ আছে বাংলায়। শনিবার মুশফিকুর রহিমের জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানাতে যেয়ে মাশরাফি বিন মুর্তজা সেই কথাগুলোই যেন আরেকবার সবাইকে স্মরণ করিয়ে দিলেন। শুধু তাই নয়, সাবেক ওয়ানডে অধিনায়ক তার কথা দিয়েই প্রমাণ করে দিয়েছেন মুশফিকের সঙ্গে নিজের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পের্কের।

শনিবার মুশফিক ৩২ পেরিয়ে তেত্রিশে পা রেখেছেন। এমন দিনে সতীর্থকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানাতে ভুলেননি মাশরাফি। নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে মিস্টার ডিপেন্ডেবলের সঙ্গে নিজের একটি ছবি পোস্ট করেন মাশরাফি লিখেন, ‘বলে না, পিচ্চি মরিচে ঝাল বেশি? চালায়ে যা মুশফিকুর রহিম। আরো ঝাল দেখা তোর। জন্মদিনের অনেক অনেক শুভেচ্ছা, বান্টু।’

এই ‘বান্টু’ শব্দ নিয়েও ভক্তদের মধ্যে বেশ মজা হচ্ছে কমেন্ট বক্সে। একজন লিখেছেন, বান্টু নামটা অফিশিয়ালি এনাউন্স করে দিলেন তাহলে।
‘বান্টু’ নামটা সামনে আসে তামিম ইকবালের সঙ্গে মাশরাফির ফেসবুক লাইভে আড্ডার সময়। দীর্ঘ ৪৭ মিনিটের আড্ডায় মুশফিককে নিয়ে কথা বলার সময় ‘বান্টু’ নামটি বেশ কয়েকবার উচ্চারণ করেন  মাশরাফি-তামিম।

মাশরাফি বাংলাদেশ ক্রিকেটের সঙ্গে আছেন ২০০১ থেকে আর মুশফিক যোগ হয়েছেন ২০০৫ সালে। দীর্ঘ এই সময়ে যে দারুণ সখ্যতা গড়ে উঠেছে সেটা মাঝে মাঝেই জানান দেন তারা।

আপাতত করোনাভাইরাসের কারণে বর্তমানে সবধরণের খেলা বন্ধ। এই সময়টা বগুড়ায় নিজের বাসাতে বসেই কাটিয়ে দিচ্ছেন মুশফিক। সেখানেই ফিটনেস রক্ষায় অনুশীলন চালিয়ে যাচ্ছেন এই টাইগার ব্যাটসম্যান। এর পাশাপাশি অসহায় মানুষদের পাশে এসেও দাঁড়িয়েছেন তিনি। নিজের জন্মদিনে প্রথম টেস্ট ডাবল সেঞ্চুরি করা ব্যাটটি নিলামে তুলছেন মিস্টার ডিপেন্ডেবল। প্রাপ্ত অর্থের পুরোটাই বিলিয়ে দেবেন আর্তমানবতার সেবায়।

এদিকে মাশরাফি নিজ এলাকা নড়াইলে মানুষের সেবায় ব্যস্ত রয়েছেন। সংসদ সদস্য হিসেবে সর্বাত্মকভাবে অসহায় মানুষদের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন তিনি। এরমধ্যেই সতীর্থদের ঠিকই খোঁজখবর নিচ্ছেন সাবেক ওয়ানডে অধিনায়ক।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..