প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

জব্দ করা মার্কিন ড্রোন ফেরত দেবে চীন

শেয়ার বিজ ডেস্ক: পানিতে চলাচল করা জব্দ মার্কিন ড্রোনটি ফেরত পাওয়ার বিষয়ে চীনের সঙ্গে তাদের একটি সমঝোতা হয়েছে বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা দফতর পেন্টাগন। খবর রয়টার্স, বিবিসি।

এদিকে চীনের জব্দ করা মানুষবিহীন ডুবোযানটি ফেরত না নিয়ে সেটি চীনকে রাখতে দেওয়া যুক্তরাষ্ট্রের উচিত বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। গত বৃহস্পতিবার দক্ষিণ চীন সাগরের আন্তর্জাতিক জলসীমায় যুক্তরাষ্ট্রের একটি চালকবিহীন ড্রোন আটক করে চীন। পেন্টাগন জানায়, জব্দ করার সময় মার্কিন ড্রোনটি পানির নিচে বৈজ্ঞানিক গবেষণায় নিয়োজিত ছিল। জব্দ ড্রোনটি দ্রুত ফেরত দিতে চীনের প্রতি দাবি জানায় যুক্তরাষ্ট্র। একই সঙ্গে ভবিষ্যতে এ ঘটনার পুনরাবৃত্তি না করতে বেইজিংকে সতর্ক করে দেয় ওয়াশিংটন। ড্রোন আটকের ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রতিক্রিয়া জানান। তিনি চীনের বিরুদ্ধে চুরির অভিযোগ করেন। এ নিয়ে চীনের সঙ্গে একটি সমঝোতা হয়েছে বলে গত শনিবার সামরিক বাহিনীর ঘোষণার পর এক টুইট বার্তায় ট্রাম্প বলেন, ‘চীনকে আমাদের বলা উচিত, তাদের চুরি করা ড্রোনটি আমরা ফেরত চাই না, তারা এটি রেখে দিক!’ যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র পিটার কুক ঘটনাটিকে ‘আন্তর্জাতিক আইনের লঙ্ঘন’ বললেও চীন বলেছে, ওই পথে জাহাজ চলাচল নিরাপদ করতেই যুক্তরাষ্ট্র নৌবাহিনীর ডুবো ড্রোনটি জব্দ করেছে চীনা নৌবাহিনী। চীনা প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ইয়াং ইউজুন এক বিবৃতিতে জানান, চীনা নৌবাহিনীর লাইফবোট দক্ষিণ চীন সাগরে ‘অজ্ঞাত’ একটি বস্তু ‘আবিষ্কার’ করে সেটিকে ‘তদন্ত’ করে দেখতে তুলে নিয়ে আসে।