সারা বাংলা

জয়পুরহাটে করোনা রোগীর বাড়িতে বাড়িতে খাদ্যসামগ্রী নিয়ে হাজির ইউএনও

প্রতিনিধি, জয়পুরহাট: জয়পুরহাটের দরিদ্র করোনা রোগীদের বাড়িতে বাড়িতে খাদ্যসামগ্রী নিয়ে হাজির হলেন ক্ষেতলাল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আরাফাত রহমান। গতকাল বিকালে করোনা আক্রান্ত এলাকায় গিয়ে তিনি নিজে বাড়ি বাড়ি গিয়ে করোনা রোগীর স্বজনদের হাতে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দেন।

জানা গেছে, করোনা আক্রান্ত সংখ্যা বেড়েই চলেছে এ জেলায়। বর্তমানে ১৮৬ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। তার মধ্যে ক্ষেতলাল উপজেলাতেই করোনা রোগীর সংখ্যা ৩৬ জন। এদের মধ্যে অধিকাংশই দরিদ্র। তাদের আইসোলেশনে নেওয়ার পর থেকে পরিবারের লোকজনের দিন কাটছে অতি কষ্টে। সেই বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে দরিদ্র পরিবারে খাদ্য সহযোগিতা দেওয়া শুরু করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরাফাত রহমান।

তারই ধারাবাহিকতায় গতকাল বিকালে উপজেলার রামপুরা ও রসুলপুর গ্রামের করোনায় আক্রান্ত লাকী বেগম ও নাজু বেগম নামের দুজন নারীর পরিবারে ভিটামিন সি সমৃদ্ধ ফলমুল ও চাল, ডালসহ বেশ কিছু খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দেওয়া হয়। এ সময় মামুদপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মশিউর রহমান, ইউপি সদস্য খলিলুর রহমানসহ স্থানীয় সংবাদকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

ইউএনও আরাফাত রহমান বলেন, করোনাভাইরাস আক্রান্তদের অবহেলার চোখে নয় তাদের সহমর্মিতার পরশ ও সার্বিক সহযোগিতা প্রয়োজন। আক্রান্ত পরিবারের আশপাশের পরিবারগুলোকে সচেতন করা হয়েছে। তারা যেন স্বাস্থ্যবিধি মানেন এবং আক্রান্ত ব্যক্তি ও তাদের পরিবারের প্রতি সংবেদনশীল থাকেন।

তিনি বলেন, পরিবারগুলোর একমাত্র উপার্জন ব্যক্তি করোনায় আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসার জন্য আইসোলেশনে রয়েছেন। আক্রান্তদের পরিবারগুলো অনেক কষ্টে আছেন। তাদের কথা চিন্তা করে করোনায় আক্রান্ত দরিদ্র প্রতিটি পরিবারকে পর্যায়ক্রমে নানাভাবে সহযোগিতা দেওয়া হচ্ছে বলে জানান তিনি।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..