প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

জয়ী হলে বিদ্যুৎ বিলে ছাড় দেবেন ঋষি

যুক্তরাজ্যে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচন

শেয়ার বিজ ডেস্ক: নির্বাচনে জয়ী হলে বিদ্যুতের বিলে ছাড় দেয়ার কথা ঘোষণা করেছেন যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী ঋষি সুনাক। খবর: রয়টার্স।

চলতি বছর গোটা ইউরোপ দাবদাহে পুড়ছে। পর্তুগাল, স্পেন, ফ্রান্স, গ্রিস ও ক্রোয়েশিয়ার মতো দেশগুলোয় দাবানলের প্রকোপে জনজীবন বিপর্যস্ত। ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস প্রায় ছুঁয়ে ফেলেছে তাপমাত্রা। পরিস্থিতি কতটা ভয়াবহ, তা সম্প্রতি পরিষ্কার হয়ে গেছে যুক্তরাজ্যের ভাইরাল হওয়া কয়েকটি ছবিতে। ওই ছবিগুলোয় ট্রেনের সিগন্যাল গলে যেতে দেখা গেছে। এতে ট্রেন চলাচলও ব্যাহত হয়েছে। দাবদাহে প্রাণ হারিয়েছেন বেশ কয়েকজন। এ কারণে বিদ্যুতের খরচ বেড়ে গেছে। বিলও আসছে তুলনামূলক বেশি।

বিদ্যুতের দাম ও লোডশেডিং বাড়ার ইঙ্গিত দিয়েছেন দেশটির সরকারি কর্মকর্তারাও। ইউক্রেনে সামরিক অভিযানের জেরে রাশিয়ার জ্বালানি পণ্যের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেয়ায় যুক্তরাজ্যেও জ্বালানির জোগান সংকুচিত হয়েছে। এর গুরুতর প্রভাব পড়তে যাচ্ছে দেশটির বিদ্যুৎ উৎপাদন খাতে। স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলো হুশিয়ারি দিয়েছে, এ বিষয়ে সরকার কোনো পদক্ষেপ না নিলে লাখ লাখ মানুষকে পথে বসতে হবে।

গত বৃহস্পতিবার এ প্রসঙ্গে কনজারভেটিভ পার্টির (টরি) ঋষি সুনাক জানিয়েছেন, তার পরিকল্পনা বাস্তবায়িত হলে পেনশনভোগী থেকে সাধারণ মানুষ সবার সুবিধা হবে। সুনাকের আশ্বাস, সেজন্য বাজেটে ঘাটতি হবে না। কারণ ঘাটতি মেটানোর জন্য অন্য প্রকল্পেরও পরিকল্পনা রয়েছে। যদিও সেজন্য ভিন্ন কোনো খাতের খরচ কমাতে হবে।

দ্য টাইমসে এক প্রবন্ধে ঋষি লিখেছেন, তার পরিকল্পনা কার্যকর হলে প্রত্যেক পরিবারের বিদ্যুতের বিল বাবদ ২০০ পাউন্ড খরচ বাঁচবে।

উল্লেখ্য, যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী পদে কে বসবেন, তা নিয়ে ভোটাভুটি ও লড়াই চলছে বেশ কয়েক দিন ধরে। অনেক প্রার্থীর মধ্যে ভোটাভুটি করে শেষ পর্যন্ত লড়াইয়ে টিকে রয়েছেন ঋষি সুনাক ও লিজ ট্রাস। ৫ সেপ্টেম্বর কনজারভেটিভ পার্টির সদস্যদের ভোটে ঠিক হবে ১০ ডাউনিং স্ট্রিটের মসনদে কে বসবেন।