প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

জানুয়ারিতে ১৫তম ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব

শোবিজ ডেস্ক: আসছে জানুয়ারিতে বসছে ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের ১৫তম আসর। রেইনবো চলচ্চিত্র সংসদের আয়োজনে ৯ দিনের এ উৎসব চলবে ১২ জানুয়ারি পর্যন্ত। খবর বিডিনিউজ।

উৎসব পরিচালক ও রেইনবো চলচ্চিত্র সংসদের সভাপতি আহমেদ মুজতবা জামাল জানান, চলচ্চিত্র উৎসবটির এবারের আসরে ৬৬ দেশের চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হবে। বাংলাদেশ থেকে তিনটি ছবি এ উৎসবে প্রদর্শনের জন্য চূড়ান্ত হয়েছে। তৌকীর আহমেদ পরিচালিত ‘অজ্ঞাতনামা’, অমিতাভ রেজা চৌধুরীর ‘আয়নাবাজি’ ও বিজন ইমতিয়াজের ‘মাটির প্রজার দেশে’ দেখানো হবে এবারের উৎসবে।

এছাড়া ভারত, রাশিয়া, ব্রাজিল, ভেনিজুয়েলা, কিউবা,  কাজাখস্তান, কিরগিজস্তান, নেপাল, আর্জেন্টিনা, সুইজারল্যান্ড, সাইপ্রাস, জর্জিয়া, ইংল্যান্ড, মিয়ানমার, তুরস্ক, ইরান, তাজিকিস্তান ও চিলিসহ ৬৬ দেশের স্বনামখ্যাত নির্মাতাদের চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হবে।

উৎসবে অস্ট্রেলেশিয়া (অস্ট্রেলিয়া ও এশিয়া) প্রতিযোগিতা বিভাগ, রেট্রোস্পেকটিভ বিভাগ, ট্রিবিউটস, সিনেমা অব দ্য ওয়ার্ল্ড, চিলড্রেন্স ফিল্মস, স্পিরিচুয়াল ফিল্মস, ইন্ডিপেনডেন্ট ফিল্মস, স্ক্যান্ডিনেভিয়ান ফিল্ম সেশন ও উইমেন্স ফিল্ম সেশন বিভাগে চলচ্চিত্রগুলো প্রদর্শিত হবে।

রেট্রোস্পেকটিভ বিভাগে এবারের উৎসবে দেখানো হবে ইরানের আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন চলচ্চিত্র নির্মাতা আব্বাস কিয়ারোস্তামির সিনেমা। চলতি বছর শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করা এই নির্মাতার ‘ক্লোজ আপ’, ‘টেস্ট অব চেরি’, ‘দ্য উইন্ড উইল ক্যারি আস’, ‘সার্টিফাইড কপি’ ও ‘লাইক সামওয়ান ইন লাভ’ দেখানো হবে এবারের উৎসবে।

একই বিভাগে দেখানো হবে তুরস্কের নারী নির্মাতা ইয়াসিম উস্তাওগলু নির্মিত ‘ওয়েটিং ফর দ্য ক্লাউড’, ‘আরাফ’, ‘জার্নি টু দ্য সান, ‘লাইফ অন দেয়ার সোলজারস’ ও ‘প্যানডোরাস বক্স’।

উৎসবের অংশ হিসেবে এবার সপ্তমবারের মতো আয়োজন করা হচ্ছে ‘ঢাকা আন্তর্জাতিক সিনে ওয়ার্কশপ’-এর। এছাড়া চলচ্চিত্রে নারীর ভূমিকাবিষয়ক সেমিনার ‘তৃতীয় আন্তর্জাতিক উইমেন ফিল্ম মেকারস কনফারেন্স’ অনুষ্ঠিত হবে। এ আয়োজন দুটি ১৩ ও ১৪ জানুয়ারি আলিয়ঁস ফ্রঁসেজ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হবে।

জাতীয় জাদুঘর মিলনায়তন, কেন্দ্রীয় পাবলিক লাইব্রেরির শওকত ওসমান মিলনায়তন, বসুন্ধরা শপিং কমপ্লেক্সের স্টার সিনেপ্লেক্স, ঢাকার আলিয়ঁস ফ্রঁসেজ মিলনায়তন ও আমেরিকান সেন্টার মিলনায়তনে উৎসবের ছবিগুলো প্রদর্শিত হবে।

এ প্রসঙ্গে আহমেদ মুজতবা জামাল বলেন, ‘এ উৎসবে চলচ্চিত্র নির্মাতা ও চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টরা তাদের চলচ্চিত্রের পরিচিতির জন্য সমবেত হবেন। এমন  উৎসবে পরিচিতি একটি গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায়, যেখানে দর্শক, পরিবেশক, পরিচালক, প্রযোজক ভাবনা বিনিময় ও স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয়ে ভাবনা এবং তথ্য আদান-প্রদান করার সুযোগ পান। আশা করছি এবারের চলচ্চিত্র উৎসব দর্শকের মনোযোগ আকর্ষণ করবে।’

১৯৯২ সাল থেকে রেইনবো চলচ্চিত্র সংসদ ‘ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব’ আয়োজন করে আসছে।