প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

জাবিতে প্রজাপতি মেলা ২ ডিসেম্বর

প্রতিনিধি, জাবি : ‘উড়লে আকাশে প্রজাপতি, প্রকৃতি পায় নতুন গতি’ স্লোগানকে সামনে রেখে প্রজাপতি সংরক্ষণ ও গণসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে আগামী ২ ডিসেম্বর (শুক্রবার) জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হবে প্রজাপ্রতি মেলা-২০২২।

বুধবার (৩০ নভেম্বর) বিকাল ৩ টায় বিশ^বিদ্যালয়ের ক্যাফেটেরিয়ার শিক্ষক লাউঞ্জে এক সংবাদ সম্মেলনে মেলার আহ্বায়ক ও বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক ড. মনোয়ার হোসেন আমাদের সময়কে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ড. মনোয়ার হোসেন জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের জহির রায়হান মিলনায়তনে ১২তম বারের মত দিনব্যাপী এ মেলা আয়োজিত হবে। সকাল সাড়ে ৯ টায় উদ্বোধন ঘোষণার মধ্য দিয়ে মেলার কার্যক্রম শুরু হবে। এরপর সচেতনতা মূলক র‌্যালী ও পাপেট শো থাকবে। শিশুদের জন্য প্রজাপতি বিষয়ক ছবি আঁকা ও কুইজ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে সকাল ১০ টায়। সকাল সাড়ে ১১টায় প্রজাপতির আদলে ঘুড়ি উড্ডয়ন ও বেলা ২ টায় বারোয়ারী বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। বিকালে প্রজাপতি চেনা প্রতিযোগিতা ও ডকুমেন্টারি প্রদর্শিত হবে। এছাড়া সব বয়সের মানুষের জন্য দিনব্যাপী আলোকচিত্র প্রদর্শনী, প্রতিযোগিতা ও প্রজাপতির হাট প্রদর্শিত হবে।

ড. মনোয়ার হোসেন আরও বলেন, বাংলাদেশে মোট ৪৫০ প্রজাতির প্রজাপতির দেখা মেলে। এর মধ্যে জাহাঙ্গীরনগরে দু’তিন বছর আগেও ১১০ প্রজাতির উপস্থিতি ছিল। তবে প্রকৃতি ধ্বংসের কারণে এখন মাত্র ৫২ প্রজাতির দেখা মেলে। আমরা চেষ্টা করছি প্রজাপতির গুরুত্ব সবার কাছে তুলে ধরার জন্য। এরা পরিবেশে পরাগায়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। তবে এ ব্যাপারে আমাদের সচেতনতা অনেক কম। প্রকৃতি সংরক্ষণ করে প্রজাপতির বাসস্থানকে নিরাপদ রাখার জন্যই সচেতনতা বাড়ানোই এ আয়োজনের লক্ষ্য।

এছাড়া প্রকৃতি সংরক্ষনে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য এবছর তরুপল্লব সংগঠনকে ‘বাটারফ্লাই অ্যাওয়ার্ড-২০২২’ দেওয়া হবে। প্রজাপতি নিয়ে গবেষণার জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের শিক্ষার্থী দীপ্ত বিশ্বাসকে বাটারফ্লাই ইয়াং ইনথুসিয়াস্ট অ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হবে। প্রজাপতির লার্ভা ও প্রজাপতি নির্ভর গাছপালার তথ্য চিত্র নিয়ে একটি পাম্পলেট প্রকাশিত হবে।