খবর শোবিজ

জামিন পেলেন নির্মাতা টোকন ঠাকুর

সরকারি অর্থ আত্মসাতের মামলায়

নিজস্ব প্রতিবেদক : সরকারি অর্থ আত্মসাতের অভিযোগের মামলায় গ্রেপ্তার কবি ও চলচ্চিত্র নির্মাতা টোকন ঠাকুর জামিনে মুক্তি পেয়েছেন। গতকাল সোমবার বিকালে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের হাজতখানা থেকে জামিনে মুক্তি পান তিনি। এ সময় তাকে তার পরিবার, আত্মীয়স্বজন ও কলাকুশলীরা বরণ করে নেন। মুক্ত হয়ে গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে আলোচিত চলচ্চিত্রের বিষয়ে কথা বলেন তিনি।

এর আগে গতকাল সোমবার দুপুরে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আবু সুফিয়ান মোহাম্মদ নোমান দুই হাজার টাকা মুচলেকায় তাকে জামিনের আদেশ দেন। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী হেমায়েত উদ্দিন খান হিরণ এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

আসামিপক্ষের আইনজীবী প্রকাশ রঞ্জন বিশ্বাস জামিনের আবেদন করেন। অপরদিকে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী হেমায়েত উদ্দিন খান হিরণ জামিনের বিরোধিতা করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক টোকন ঠাকুরকে জামিনের এই আদেশ দেন।

আদালতের সংশ্লিষ্ট হাজতখানার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা পুলিশের উপ-পরিদর্শক শহিদুল ইসলাম জানান,  সোমবার বেলা ১টা ১৫ মিনিটে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হয় টোকন ঠাকুরকে। এরপর তাকে হাজতখানায় রাখা হয়। উল্লেখ্য, রোববার রাতে নিউমার্কেট এলাকা থেকে টোকন ঠাকুরকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, টোকন ঠাকুর ২০১৩ সালে কথাশিল্পী শহীদুল জহিরের গল্প ‘কাঁটা’ অবলম্বনে চলচ্চিত্র নির্মাণের জন্য সরকারি অনুদান পান। ৩৫ লাখ সরকারি অনুদানের মধ্যে ১৩ লাখ টাকা তথ্য মন্ত্রণালয় থেকে তুলে নিলেও ওই চলচ্চিত্রের কোনো কাজ করেননি বলে অভিযোগ রয়েছে। এ কারণে সরকারি অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে তথ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষে টোকন ঠাকুরের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করা হয়।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..