প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

জিডিপিতে ব্রিটেনকে ছাড়ালো ভারত

শেয়ার বিজ ডেস্ক: অর্থনীতিতে শক্তিশালী দেশের তালিকার ছয় নম্বরে স্থান পেয়েছে ভারত। এ তালিকায় ভারত ব্রিটেনকেও পেছনে ফেলেছে। গত ১৫০ বছরের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো মোদি সরকারের সময় এ ঘটনা দেশটির জন্য একটি বড় অর্জন হিসেবে দেখছেন বিশ্লেষকরা। খবর ইকোনমিক টাইমস।

আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) প্রতিবেদন অনুযায়ী, ওই তালিকায় প্রথম স্থানে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এর পরেই চীন, জাপান, জার্মানি, ফ্রান্স ও ভারতের স্থান। ব্রেক্সিটের পর থেকেই ব্রিটেনের রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক পরিস্থিতি সংকটে পড়েছে।

বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, ব্রিটেনের জিডিপি বৃদ্ধির হার ২০১৬ সালে ছিল মাত্র ১ দশমিক ৮ শতাংশ। ২০১৭ সালে এটি কমে দাঁড়াবে ১ দশমিক ১ শতাংশে। অন্যদিকে ২০১৭ সালে ভারতের জিডিপি বৃদ্ধির পরিমাণ হবে ৭ দশমিক ৬ শতাংশ।

জিডিপিতে এগিয়ে থাকার কারণে ব্রিটেনকে পেছনে ফেলেছে ভারত। নোট বাতিলের সিদ্ধান্তের পরেই অনেকে অভিযোগ করেছিলেন, ভারতের বাণিজ্য ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবে। স্বাভাবিকভাবে বিভিন্ন ক্ষেত্রে আয়ের পরিমাণ কমে ভারতীয় অর্থনীতি ক্ষতির মুখে পড়বে বলেও আশঙ্কা করা হয়েছিল। এ আশঙ্কাকে ভুল প্রমাণ করেই অর্থনীতিতে শক্তিশালী দেশের তালিকার শীর্ষে অবস্থান করছে দেশটি।

২০১১ সালের ডিসেম্বরে সেন্টার ফর ইকোনমিকস অ্যান্ড বিজনেস রিচার্স (সিইবিআর) পূর্বাভাস দিয়েছিল, ২০২০ সালের মধ্যে বিশ্বের পঞ্চম বৃহত্তম অর্থনীতির দেশ হবে ভারত। পূর্বাভাস অনুযায়ী ওই সময়ের অনেক আগেই এটি সত্যি হলো। এছাড়া চলতি বছরের অক্টোবরে আইএমএফ পূর্বাভাস দিয়েছিল, চলতি অর্থবছর শেষে ভারতের অর্থনীতি ইউরোপকে ছাড়াবে। ওই সময় আইএমএফ বলেছিল, ‘বিশ্বের সপ্তম বৃহত্তম অর্থনীতির দেশ ভারত। দেশটির মোট সম্পদ দুই দশমিক ২৯ ট্রিলিয়ন ডলার, ব্রিটেনের তুলনায় যা মাত্র ৫০ বিলিয়ন ডলার কম। চলতি অর্থবছর শেষে ব্রিটেনকে ছাড়িয়ে যাবে দেশটি।’