প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

জিরো ফিগারের স্বপ্ন কেরে নিলো ২১ বছরের অভিনেত্রীর জীবন

শোবিজ ডেস্ক: কন্নড়ের মডেল ও অভিনেত্রী চেতনা রাজ মারা গেছেন। জানা গেছে, শরীরের মেদ ঝরানোর জন্য প্লাস্টিক সার্জারি করাতে গিয়েছিলেন ২১ বছরের এই তরুণী নায়িকা।প্লাস্টিক সার্জারি করার পর এই অভিনেত্রীর মৃত্যু হয়েছে। বেঙ্গালুরুর একটি হাসপাতালে সোমবার (১৬ মে) সন্ধ্যায় তিনি মারা যান।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া জানায়, পরিবারকে না জানিয়ে এদিন সকালে চর্বি কমানোর অস্ত্রোপচারের জন্য বেঙ্গালুরুর শেঠি কসমেটিক হাসপাতালে ভর্তি হন চেতনা। এরপর অস্ত্রোপচারের সময় তার ফুসফুসে পানি জমে যায়্ ও শ্বাসকষ্ট শুরু হয় তার। এতে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হয়ে পড়ে। তারপর দ্রুত চেতনাকে নিয়ে অ্যানাস্থেসিস্ট মেলভিন এবং প্লাস্টিক সার্জন একটি বেসরকারি হাসপাতালে হাজির হন। তারা ওই হাসপাতালের ডাক্তারদের বলেন, রোগী হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছেন, দ্রুত চিকিৎসা শুরু করুন।

পরে ওই হাসপাতালের ডাক্তারদের রীতিমতো হুমকি দিয়ে মেলভিন এবং ওই প্লাস্টিক সার্জন জানান, রোগীর অসুস্থতা নিয়ে মুখ খোলা যাবে না।

বেসরকারি হাসপাতালের আইসিইউর দায়িত্বে থাকা চিকিৎসক সন্দীপ বলেন, ‘প্লাস্টিক সার্জারির প্রতিষ্ঠানের কর্মীরা জানতেন যে, চেতনার মৃত্যু অনেক আগেই হয়েছে। তারপর তারা হুমকি দিতে থাকেন।

মৃত্যুর খবর পেয়ে চেতনার পরিবারের সদস্যরা হাসপাতালে ছুটে যায়। সেখানে মেয়ের মৃতদেহ দেখে কান্নায় ভেঙে পড়েন চেতনার মা। চেতনার পরিবার থাকে বেঙ্গালুরুর নর্থ তালুকে।

চেতনার বাবার অভিযোগ, প্রয়োজনীয় সামগ্রী এবং পরিবারের সম্মতি না নিয়েই চিকিৎসক চর্বি অপসারণের এই অস্ত্রোপচার করেছেন। চিকিৎসকের ভুলের জন্যই তাদের সন্তানের মৃত্যু হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় থানায় মামলাও দায়ের করেছেন চেতনার বাবা-মা।

পুলিশ জানিয়েছে, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

 তিনি বেশকিছু টেলিভিশন সিরিয়াল ও সিনেমায় অভিনয় করেছেন। কালারস কন্নড় টিভির ‘গীত’, ‘দোরাসানি’ এবং ‘লার্নিং স্টেশন’ প্রভৃতি সিরিয়ালে দেখা গেছে তাকে। এছাড়া মুক্তির অপেক্ষায় থাকা ‘হাওয়াইয়ান’ নামে একটি সিনেমাতেও অভিনয় করেছেন চেতনা। কিন্তু সিনেমাটি মুক্তির আগেই না ফেরার দেশে চলে গেলেন তিনি।