সুস্বাস্থ্য

জীবন রক্ষাকারী ইনজেকশন বিনামূল্যে

 

রাজধানীর জাতীয় হৃদ্রোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে (এনআইসিভিডি) হৃদ্রোগে আক্রান্ত নিম্ন বিত্ত রোগীদের বিনা মূল্যে স্ট্রেপটোকাইনেজ ইনজেকশন দেওয়া হয়। এর মধ্য দিয়ে উন্নত সেবা নিশ্চিত করছে হাসপাতালটি

হার্ট অ্যাটাকের পর আক্রান্ত ব্যক্তির রক্ত জমাট বেঁধে যায়। এমন পরিস্থিতিতে ধমনিতে জমাট বেঁধে যাওয়া রক্ত গলিয়ে জীবন রক্ষা করে ইনজেকশন। অর্থাৎ ইনজেকশন দেওয়ার পর জমাট বাঁধা রক্ত তরল হয়ে এর চলাচল স্বাভাবিক করে। সচল করে হƒৎযন্ত্র। যত দ্রুত রোগীর শিরাপথে এই ইনজেকশন দেওয়া যাবে, হার্টের পেশি তত ক্ষতি হওয়া থেকে রক্ষা পাবে। রাজধানীর জাতীয় হƒদ্রোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে (এনআইসিভিডি) গরিব রোগীদের বিনা মূল্যে এ ইনজেকশন দেওয়া হচ্ছে।

ইনজেকশনটির নাম স্ট্রেপটোকাইনেজ। হার্ট অ্যাটাকের পর কোনো রোগী ওই হাসপাতালের জরুরি বিভাগে গেলে তিনি বিনামূল্যে ইনজেকশনটি পাবেন। জরুরি ভিত্তিতে নি¤œবিত্ত রোগীর কথা বিবেচনা করে হাসপাতালের নিজস্ব বরাদ্দ থেকে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। দরিদ্র রোগীদের আর্থিক অবস্থা লাঘবের জন্য এ সেবা চালু করেছে হাসপাতালটি। এর মধ্য দিয়ে তাদের উন্নত সেবা নিশ্চিত করা হচ্ছে। দিন ও রাতের যে কোনো সময় এ সেবা পেয়ে থাকে হার্ট অ্যাটাকে আক্রান্ত গরিব রোগী।

প্রতিদিন গড়ে প্রায় দুইশ রোগী এনআইসিভিডিতে ভর্তি হন। এর মধ্যে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা প্রায় ৮০। তাদের মধ্যে মারাত্মক হƒদরোগে (একিউট হার্ট অ্যাটাক) আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা প্রায় ৩০ জন। বছরে প্রায় হাজার স্ট্রেপটোকাইনেজের চাহিদা রয়েছে এখানে। যথাযথ পর্যবেক্ষণ ও রক্ষণাবেক্ষণের মধ্য দিয়ে ইনজেকশন প্রাপ্তির বিষয়টি নিশ্চিত করে থাকে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

একিউট হার্ট অ্যাটাক ও স্ট্রেপটোকাইনেজ হার্টের রক্তনালিতে ব্লক ও ব্লকে রক্ত জমাট বাঁধায় একিউট হার্ট অ্যাটাক হয়। এরপর যত দ্রুত সম্ভব রোগীকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া উচিত। ছয় ঘণ্টার মধ্যে ইনজেকশন দিতে পারলে ভালো।

সাধারণত দুটি পদ্ধতিতে চিকিৎসা দেওয়া হয়ে থাকেÑপ্রাইমারি করোনারি ইন্টারভেনশন (পিসিআই) ও স্ট্রেপটোকাইনেজ ইনজেকশন পুশ করা। রোগী হাসপাতালে পৌঁছানোর ৩০ মিনিটের মধ্যে ইনজেকশন পুশ করা হয়। এজন্য দ্রুততম সময়ে পরীক্ষার মাধ্যমে ডাক্তার রোগটি চিহ্নিত করেন।

স্ট্রেপটোকাইনেজ প্রস্তত করে বীকন ফার্মাসিউটিক্যালস, পপুলার ফার্মাসিউটিক্যালস, সানোফি-অ্যাভেন্টিস বাংলাদেশ, ইনসেপটা ফার্মাসিউটিক্যালস প্রভৃতি প্রতিষ্ঠান।

প্রসঙ্গত, বাইরের ওষুধের দোকানে ইনজেকশনটির দাম পাঁচ থেকে ছয় হাজার টাকা।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..