বিশ্ব বাণিজ্য

টানা চার মাস কমল চীনের রপ্তানি

শেয়ার বিজ ডেস্ক : চলতি বছরের নভেম্বর নাগাদ টানা চার মাসের মতো চীনের রপ্তানি কমেছে। বাজার চাঙা হওয়ার উচ্চ প্রত্যাশা এবং চলমান চীন-মার্কিন বাণিজ্য বিতর্কের জেরে দেশটির ম্যানুফ্যাকচারাররা অব্যাহত চাপে থাকায় এমনটি হয়েছে। খবর: রয়টার্স।

বিশ্বের প্রধান দুই অর্থনীতির চলমান দীর্ঘ ১৭ মাসের বাণিজ্যযুদ্ধ বৈশ্বিক মন্দার ঝুঁকি বাড়িয়েছে। অন্যদিকে শ্লথ হয়ে পড়া নিজেদের অর্থনীতি চাঙা করতে বেইজিং আরও কিছু প্রণোদনা ঘোষণা করতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

গত বছরের একই সময়ের তুলনায় নভেম্বরে দেশটির বৈদেশিক চালান এক দশমিক এক শতাংশ কমেছে। যদিও এ সময় খাতটি এক শতাংশ সম্প্রসারিত হতে পারে বলে পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছিল রয়টার্সের সমীক্ষায়। অন্যদিকে অক্টোবরে তা কমেছিল দশমিক ৯ শতাংশ।

তবে কমার আশঙ্কা সত্ত্বেও বছরওয়ারি হিসেবে নভেম্বরে দেশটির আমদানি আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় দশমিক তিন শতাংশ বেড়েছে। রয়টার্সের জরিপে তা এক দশমিক আট শতাংশ কমতে পারে বলে পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছিল। অক্টোবরে এ খাত সংকুচিত হয়েছিল ছয় দশমিক চার শতাংশ। বছরওয়ারি হিসেবে এপ্রিলের পর নভেম্বরে অর্থনীতিটির এ খাত প্রথম সম্প্রসারিত হয়েছে।

প্রসঙ্গত, চলমান বাণিজ্যযুদ্ধ প্রশমিত করতে বেইজিং ও ওয়াশিংটনের বাণিজ্য প্রতিনিধিরা আপ্রাণ চেষ্টা করছেন। কয়েক মাস ধরে দেশ দুটির মধ্যে প্রথম পর্যায় বা অন্তর্বর্তীকালীন বাণিজ্য চুক্তির আলোচনা চললেও এখনও কোনো কিছু চূড়ান্ত হয়নি। উভয় পক্ষ বিভিন্ন ইস্যুতে দরকষাকষি করছে। নিজেদের পণ্যে ওয়াশিংটন আরোপিত শুল্ক বড় আকারে প্রত্যাহার বা হ্রাস চায় বেইজিং। অন্যদিকে চীন প্রতি বছর বেশি হারে যুক্তরাষ্ট্রের কৃষিপণ্য কিনবে, এমন প্রতিশ্রুতি চায় ওয়াশিংটন।

এদিকে দুই পক্ষের মধ্যে অন্তর্বর্তীকালীন বাণিজ্য চুক্তি নিয়ে আলোচনা অব্যাহত থাকা সত্ত্বেও আকাক্সিক্ষত এ চুক্তি নিয়ে কোনো কিছু স্পষ্ট হওয়ার বদলে ক্রমেই জটিল হয়ে উঠছে সবকিছু। চীনের সংখ্যালঘু উইঘুর মুসলমান জনগোষ্ঠীর ওপর দমন-পীড়ন নিয়ে এরই মধ্যে একটি বিল পাস করেছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি পরিষদ, যা চলমান আলোচনাকে আরও মেঘাচ্ছন্ন করে তুলেছে। বিলটি দুই পক্ষের সহযোগিতামূলক দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ককে ক্ষতিগ্রস্ত করবে বলে হুশিয়ারি দিয়েছে বেইজিং। এছাড়া বিলটির জবাবে নিজেদের স্বার্থ রক্ষায় পাল্টা পদক্ষেপ নেওয়ারও ঘোষণা দিয়েছে দেশটি। 

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..