বিশ্ব সংবাদ

টিকটক-উইচ্যাটের আর্থিক লেনদেনে ট্রাম্পের নিষেধাজ্ঞা

শেয়ার বিজ ডেস্ক : চীনা ভিডিও শেয়ারিং অ্যাপ টিকটকের মালিকানা কোম্পানি বাইটড্যান্স ও ওইচ্যাটের মূল কোম্পানি টেনসেন্টের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের আর্থিক লেনদেনের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। এ-সংক্রান্ত নির্বাহী আদেশে সই করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। নির্বাহী আদেশ জারির ৪৫ দিনের মাথায় এ নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে। এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের এ সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার হুশিয়ারি দিয়েছেন টিকটক কর্তৃপক্ষ। খবর: বিবিসি।

চলতি সপ্তাহে হোয়াইট হাউস যুক্তরাষ্ট্রের ডিজিটাল নেটওয়ার্ক থেকে ‘অবিশ্বস্ত’ চীনা অ্যাপগুলোকে মুক্ত করার পদক্ষেপ নিয়ে কাজ করার কথা জানায়। হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে ওই সময় টিকটক এবং ওইচ্যাটকে ‘মারাত্মক হুমকি’ হিসেবে অভিহিত করা হয়। আর এরপরই ট্রাম্পের নির্বাহী আদেশ জারি হলো।

ট্রাম্প স্বাক্ষরিত নির্বাহী আদেশে বলা হয়েছে, ‘টিকটক সম্ভবত চীনের ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টির সুবিধার জন্য ভুল তথ্য ছড়ায়; যা দেশের জাতীয় নিরাপত্তার জন্য হুমকি। তাই জাতীয় নিরাপত্তা সুরক্ষিত করতে টিকটকের মালিকের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের অবশ্যই আগ্রাসী পদক্ষেপ নেওয়া উচিত।’

ট্রাম্প নির্বাহী আদেশে আরও বলেন, ‘উইচ্যাট স্বয়ংক্রিয়ভাবে ব্যবহারকারীদের বিপুল পরিমাণ তথ্য সংগ্রহ করে। আর এ তথ্য সংগ্রহ ব্যবস্থায় চীনের কমিউনিস্ট পার্টির প্রবেশাধিকার আমেরিকানদের ব্যক্তিগত ও সম্পত্তিতুল্য তথ্যের জন্য মারাত্মক একটি হুমকি।’

নির্বাহী আদেশ জারির ৪৫ দিনের মাথায় কোম্পানি দুটির সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের যে কোনো ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের লেনদেন হবে অবৈধ। যদি কেউ এ ধরনের লেনদেন করে ওই দুই কোম্পানির সঙ্গে তাহলে মার্কিন আইন অনুযায়ী তাদের বিচারের মুখোমুখি হতে হবে।

এদিকে টিকটক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে তারা যুক্তরাষ্ট্রের এ সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপে যাবে। এর আগেও চায়না ডেইলি জানিয়েছে, চীনা কোম্পানিগুলো যুক্তরাষ্ট্রের হুমকির বিষয়টি তাদের আমেরিকা ফার্স্ট নীতির লক্ষ্য অর্জনে কোনো ফল যোগ করবে না। এর ফলাফল হিসেবে চীনকে হয় মাথা নোয়াতে হবে, না হয় প্রযুক্তি দুনিয়ায় মরণপণ যুদ্ধ চালাতে হবে। যদি মার্কিন কর্তৃপক্ষের চীনা কোম্পানিগুলোকে গুঁড়িয়ে দিতে হস্তগত করার পরিকল্পনা থাকে, তবে চীনের তার জবাব দেওয়ার অনেক পথ খোলা আছে।

জাতীয় নিরাপত্তার অজুহাতে ট্রাম্প টিকটক বন্ধ করে দেওয়ার অথবা একে কিনে নেওয়ার জন্য ৪৫ দিনের সময় বেঁধে দেওয়ার পর মাইক্রোসফট কর্তৃপক্ষ গত সোমবার বলেছে, তারা দ্রুত আলোচনা এগিয়ে নিচ্ছে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..