প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

ট্রাম্প-জ্যাক মা বৈঠক: যুক্তরাষ্ট্রে ১০ লাখ কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্য আলিবাবার

 

শেয়ার বিজ ডেস্ক: চীনের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্ক বন্ধুত্বপূর্ণ ও শক্তিশালী করতে সম্মত হয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। নিউইয়র্কের ট্রাম্প টাওয়ারে ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠকের পর শীর্ষ ই-কমার্স কোম্পানি চীনের আলিবাবার চেয়ারম্যান জ্যাক মা এ কথা জানান। তিনি বলেন, অনলাইন শপিংবাজারের ওয়েবসাইট ব্যবহারের মধ্য দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে প্রায় ১০ লাখ কর্মসংস্থান বাড়াতে সহায়তা করবে আলিবাবা। খবর বিবিসি।

এর আগে নির্বাচনী প্রচারণায় চীনের পণ্য আমদানিতে শুল্ক আরোপের কথা জানিয়েছিলেন ট্রাম্প।

জ্যাক মা’র সঙ্গে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের ট্রাম্প বলেন, আমি ও জ্যাক কিছু দারুণ বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছি। আমরা ভালো কিছু কাজ করতে যাচ্ছি। ট্রাম্প এ সময় প্রতিষ্ঠানটির প্রশংসা করেছেন বলেও জানান তিনি।

অন্যদিকে জ্যাক মা যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রেসিডেন্টকে ‘স্মার্ট’ ও ‘ওপেন মাইন্ডেড’ বলে আখ্যা দিয়ে ট্রাম্পের প্রশংসা করেছেন। চীনের এই ব্যবসায়ী তার কোম্পানির পরিকল্পনার কথা জানান। আলীবাবার মুখপাত্র বব ক্রিস্টি বলেন, আগামী পাঁচ বছরে আমেরিকায় আমরা ১০ লাখ মানুষের কর্মসংস্থান তৈরি করার পরিকল্পনা করছি। আমাদের পরিকল্পনায় আমেরিকার ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা আলিবাবার সঙ্গে কাজ করে তাদের ব্যবসাকে সম্প্রসারিত করতে পারবেন।

জ্যাক মা চীনের অন্যতম ধনকুবের ব্যবসায়ী। চীনের ভোক্তাদের কাছে পৌঁছানোর জন্য যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যম সারির কৃষক ও পোশাক প্রস্তুতকারকদের আলিবাবার ওয়েবসাইট ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছেন জ্যাক। চীনে অনলাইন পণ্য বিক্রির ৮০ ভাগই আলিবাবার মাধ্যমে হয়।

নির্বাচিত হয়ে চীনের পণ্যের প্রতি শুল্কারোপের কথা জানিয়ে নিউইয়র্কের রিয়েল এস্টেট ধনকুবের ডোনাল্ড ট্রাম্প বেশ আলোচিত হয়েছিলেন। চীনের পণ্য আমেরিকার বাজারে প্রবেশের জন্য আরও শুল্ক দিতে হবে বলে জানান ট্রাম্প।

অনেকের ধারণা ছিল, ট্রাম্প চীনের সঙ্গে বাণিজ্য যুদ্ধে যুক্ত হবেন। তবে আলিবাবার চেয়ারম্যানের সঙ্গে বৈঠক করে তা কিছুটা হলেও হ্রাস পাবে বলে ধারণা করা যাচ্ছে।