প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে কার্যকর ও সহজ পদক্ষেপ হচ্ছে সচেতনতা। সম্পূর্ণ নিরাময়ের কোনো উপায় না থাকায় ডায়াবেটিস বিশ্বে অন্যতম ভয়ঙ্কর রোগ হিসেবে বিবেচিত। বিশেষজ্ঞদের মতে, স্বাস্থ্যসম্মত খাদ্যাভ্যাস ও কিছু নিয়মকানুন মেনে চললে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়। এমন কয়েকটি অভ্যাস দেখে নিতে পারেন।

ওজন কমান

ডায়াবেটিসের মাত্রা নির্ভর করে আপনার জীবনধারার ওপর। এক সমীক্ষায় দেখা গেছে, প্রতি ১০ জনের আটজন টাইপ২ ডায়াবেটিস রোগী স্থূূলকায়। অর্থাৎ শরীরের অতিরিক্ত চর্বিই ডায়াবেটিসের অন্যতম কারণ। তাই ওজন নিয়ন্ত্রণ জরুরি।

ওজন কমানোর জন্য ব্যায়াম করতে পারেন। জিমে না গিয়েও শরীরের অতিরিক্ত চর্বি কমানো যায়। শারীরিকভাবে সক্রিয় থাকুন। কর্মমুখর জীবনযাপন করুন। নিয়ম করে হাঁটুন।

নিয়ন্ত্রণে রাখুন খাদ্যাভ্যাস

খাদ্যাভ্যাস খুবই জরুরি একটি বিষয়। শর্করা জাতীয় খাবারের নিয়ন্ত্রণ গুরুত্বপূর্ণ হলেও শিমের বীজ, সবুজ পাতাযুক্ত শাকসবজি, ভিটামিন ‘সি’যুক্ত ফল, মিষ্টিআলু, টমেটো, বাদাম, বেরী জাতীয় ফল, মাছ, গম প্রভৃতি খাবার খেতে কোনো বাধা নেই।

স্বাস্থ্যকে গুরুত্ব দিন

খাদ্য ও পানীয় গ্রহণের সঙ্গে সঙ্গে শরীরের অন্য বিষয়কেও গুরুত্ব দিতে হবে। ওষুধ সেবনের আগে সেগুলোর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া সম্পর্কে জানতে হবে। যেমন যুক্তরাষ্ট্রের ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন বা এফডিএ দ্বারা স্বীকৃত ডায়াবেটিসের কিছু ওষুধে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া আছে। যার মধ্যে মাথা ঘোরা, মুখ শুকিয়ে যাওয়া, রক্তে এসিডের মাত্রা বেড়ে যাওয়া অন্যতম।