কোম্পানি সংবাদ

ডিএসইএক্স সূচক ফের ছয় হাজারের নিচে

নিজস্ব প্রতিবেদক: টানা দুই দিনের দরপতনে ফের ছয় হাজারের নিচে নেমে গেল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স। সবশেষ দুই কার্যদিবসে সূচক কমেছে ১৫১ পয়েন্ট। এর আগের দুই দিন সূচক ঊর্ধ্বমুখী ছিল। গতকাল ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ৮০ শতাংশ শেয়ারের দর কমায় সবকটি সূচকে বড় ধরনের পতন হয়। আগের দিনের তুলনায় লেনদেন কমেছে ৭২ কোটি টাকা। গতকাল লেনদেনের শুরু থেকেই বিক্রির চাপ শুরু হলে সূচক নেমে যেতে থাকে। শেষ পর্যন্ত ৯৯ পয়েন্ট পতন দিয়ে লেনদেন শেষ হয়। অন্যদিকে সিএসইতে সবগুলো সূচক পতনের পাশাপাশি বেশিরভাগ শেয়ারের দর কমেছে। তবে লেনদেন আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে।

বাজার পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে, গতকাল ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স ৯৯ দশমিক ৪৩ পয়েন্ট বা এক দশমিক ৬৪ শতাংশ কমে পাঁচ হাজার ৯৫০ দশমিক ৭৫ পয়েন্টে অবস্থান করে। ডিএসইএস বা শরিয়াহ্ সূচক ১০ দশমিক ৭৯ পয়েন্ট বা দশমিক ৭৬ শতাংশ কমে এক হাজার ৩৯৪ দশমিক ৬৪ পয়েন্টে অবস্থান করে। আর ডিএস৩০ সূচক ৩৭ দশমিক ৩৮ পয়েন্ট বা এক দশমিক ৬৭ শতাংশ কমে দুই হাজার ১৯৩ দশমিক ৫৪ পয়েন্টে অবস্থান করে। গতকাল ডিএসইর বাজার মূলধন কমে চার লাখ ১৩ হাজার ৭৪৯ কোটি ৬৬ লাখ ৮৪ হাজার টাকা হয়। ডিএসইতে গতকাল লেনদেন হয় ৪৪০ কোটি ২৩ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের দিন লেনদেন হয় ৫১২ কোটি ১৭ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসেবে লেনদেন কমেছে ৭২ কোটি টাকা। এ দিন ১৩ কোটি ২৮ লাখ ৮৪ হাজার ৯টি শেয়ার এক লাখ ১৬ হাজার ৪৭ বার হাতবদল হয়। লেনদেন হওয়া ৩৩৬টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ৪৯টির, কমেছে ২৭০টির, অপরিবর্তিত ছিল ১৭টির দর।

গতকাল টাকার অঙ্কে ও শেয়ার সংখ্যা লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে ফুওয়াং ফুড। ১৬ কোটি ৪৯ লাখ টাকায় ৭৭ লাখ ৪২ হাজার ৪৫০টি শেয়ার লেনদেন হয়। শেয়ারটির দর ৭০ পয়সা বেড়েছে। এরপরের অবস্থানে ছিল ইউনিক হোটেল অ্যান্ড রিসোর্ট, লংকাবাংলা ফিন্যান্স, ব্রাক ব্যাংক, জিপি, মন্নু সিরামিক, আনোয়ার গ্যালভানাইজিং, ফু ওয়াং সিরামিক, কেয়া কসমেটিকস ও আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজ। সর্বোচ্চ সংখ্যক শেয়ার লেনদেনকারী কোম্পানিগুলোর মধ্যে দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসে কেয়া কসমেটিকস। কোম্পানিটির ৭৫ লাখ ৫৬ হাজার ২৪টি শেয়ার লেনদেন হয়। শেয়ারটির দর ১০ পয়সা কমেছে। এর পরের অবস্থানে ছিল ম্যাকসন্স স্পিনিং, জেনারেশন নেক্সট, ফু ওয়াং সিরামিক, মেট্রো স্পিনিং, লংকাবাংলা ফিন্যান্স, ইনটেক অনলাইন, এনবিএল ও ইউনিক হোটেল অ্যান্ড রিসোর্ট।

৯ দশমিক ৮৭ শতাংশ দর বেড়েছে ফাইন ফুডসের। এরপর ছয় দশমিক ৯৬ শতাংশ দর বাড়ে ইনটেক অনলাইনের। এ্যাপেক্স ফুডসের দর ছয় দশমিক শূন্য ৯ শতাংশ, মেট্রো স্পিনিংয়ের দর ছয় দশমিক শূন্য এক শতাংশ বাড়ে। ম্যাকসন্স স্পিনিংয়ের দর বাড়ে চার দশমিক ৬৭ শতাংশ।

অন্যদিকে ৯ দশমিক ২১ শতাংশ দর কমে পতনের শীর্ষে চলে আসে বেক্সিমকো সিনথেটিকস। এরপর সাত দশমিক ৩৩ শতাংশ দর কমে ঢাকা ডায়িংয়ের। উত্তরা ব্যাংকের দর ছয় দশমিক ৮৬ শতাংশ কমেছে। প্রাইম ব্যাংকের দর ছয় দশমিক ১৬ শতাংশ, হাক্কানি পাল্পের দর পাঁচ দশমিক ৮৭ শতাংশ কমেছে।

চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) গতকাল সিএসসিএক্স মূল্য সূচক ১৭৮ পয়েন্ট কমে ১১ হাজার ১১৮ পয়েন্টে এবং সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ২৯৮ পয়েন্ট কমে ১৮ হাজার ৪২৩ পয়েন্টে অবস্থান করে। গতকাল সর্বোমোট ২২৭টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৩০টির। কমেছে ১৮২টির। অপরিবর্তিত ছিল ১৫টির দর।

সিএসইতে এ দিন ৩০ কোটি পাঁচ লাখ ৫৯ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। আগের দিন লেনদেন হয় ২৭ কোটি ৭৪ লাখ ৩৪ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসাবে লেনদেন কমেছে দুই কোটি ৩১ লাখ টাকা। লেনদেনের শীর্ষে ছিল ইস্টার্ন ক্যাবলস। কোম্পানিটির ১০ কোটি ১২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। এছাড়া লংকাবাংলা ফিন্যান্সের ৯৯ লাখ টাকার, জেনারেশন নেক্সটের ৮৫ লাখ, ফু ওয়াং ফুডের ৭৭ লাখ, গ্রামীণফোনের ৭৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..