কোম্পানি সংবাদ পুঁজিবাজার

ডিএসইতে দৈনিক গড় লেনদেন বেড়েছে ১৭ শতাংশ

সপ্তাহের ব্যবধান

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গত সপ্তাহে দৈনিক গড় লেনদেন বেড়েছে ১৬ দশমিক ৭৯ শতাংশ। তবে বাজার মূলধন কমেছে এক দশমিক ৩৪ শতাংশ। সাপ্তাহিক বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৬৭ দশমিক ৯৩ পয়েন্ট বা এক দশমিক ৩৮ শতাংশ কমে চার হাজার ৮৪৬ দশমিক ১০ পয়েন্টে স্থির হয়। ডিএসইএস বা শরিয়াহ সূচক ১৫ দশমিক ৩৭ পয়েন্ট বা এক দশমিক ৩৮ শতাংশ কমে এক হাজার ৯৮ দশমিক ৮০ পয়েন্টে পৌঁছায়। ডিএস৩০ সূচক ১২ দশমিক ৩১ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ৭৩ শতাংশ কমে এক হাজার ৬৮০ দশমিক ১৩ পয়েন্টে স্থির হয়। মোট ৩৬৪টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১০৬টির, কমেছে ২১০টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৪৪ কোম্পানির শেয়ারদর। লেনদেন হয়নি চারটির। দৈনিক গড় লেনদেন হয় ৯৯০ কোটি ৫৭ লাখ ১৩ হাজার ৪৭২ টাকা। আগের সপ্তাহে দৈনিক গড় লেনদেন হয় ৮৪৮ কোটি ১৫ লাখ ৮৪ হাজার ২৮৮ টাকা। অর্থাৎ এক সপ্তাহের ব্যবধানে দৈনিক গড় লেনদেন বেড়েছে ১৪২ কোটি ৪১ লাখ ২৯ হাজার ১৮৪ টাকা বা ১৬ দশমিক ৭৯ শতাংশ।

গেল সপ্তাহে ডিএসইতে মোট টার্নওভার বা লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়ায় ৩ হাজার ৯৬২ কোটি ২৮ লাখ ৫৩ হাজার ৮৮৭ টাকা, আগের সপ্তাহে যা ছিল চার হাজার ২৪০ কোটি ৭৯ লাখ ২১ হাজার ৪৪০ টাকা। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে টার্নওভার কমেছে ২৭৮ কোটি ৫০ লাখ ৬৭ হাজার ৫৫৩ টাকা বা ৬ দশমিক ৫৭ শতাংশ।

ডিএসইতে গত সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসে বাজার মূলধন তিন লাখ ৯৬ হাজার ৫৭৫ কোটি পাঁচ লাখ ২০ হাজার ৯৮৮ টাকা, শেষ কার্যদিবসে যার পরিমাণ ছিল তিন লাখ ৯১ হাজার ২৫১ কোটি ৫০ লাখ ১২ হাজার ২৭৭ টাকা। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে বাজার মূলধন কমেছে পাঁচ হাজার ৩২৩ কোটি ৫৫ লাখ ৮ হাজার ৭১১ টাকা বা এক দশমিক ৩৪ শতাংশ।

গত সপ্তাহে ডিএসইর টপ টেন গেইনার তালিকার শীর্ষে উঠে আসে বে লিজিং অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির শেয়ারদর বেড়েছে ১৭ দশমিক ১৩ শতাংশ। গত সপ্তাহে কোম্পানিটির প্রতিদিন গড় লেনদেন হয়েছে ৩ কোটি ২৫ লাখ ৩৬ হাজার টাকার শেয়ার। সপ্তাহ শেষে মোট লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়ায় ১৩ কোটি ১ লাখ ৪৪ হাজার টাকা।

তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে এবি ব্যাংক ফার্স্ট মিউচুয়াল ফান্ড। ‘এ’ ক্যাটেগরির এ ফান্ডটির ইউনিটদর বেড়েছে ১৬ দশমিক ৯৫ শতাংশ। আলোচ্য সপ্তাহে কোম্পানিটির প্রতিদিন ৮ কোটি ৮৪ লাখ ৮৮ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ৩৫ কোটি ৩৯ লাখ ৫২ হাজার টাকার শেয়ার।

তালিকার তৃতীয় স্থানে রয়েছে বিডি থাই অ্যালুমিনিয়াম লিমিটেড। ‘বি’ ক্যাটেগরির এ কোম্পানিটির শেয়ারদর বেড়েছে ১৫ দশমিক ১২ শতাংশ। আলোচ্য সপ্তাহে কোম্পানিটির প্রতিদিন ৫ কোটি ৯৬ লাখ ৮৯ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ২৩ কোটি ৮৭ লাখ ৫৬ হাজার টাকার শেয়ার।

ডিএসইতে টার্নওভারের দিক থেকে শীর্ষে ছিল বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড। সপ্তাহজুড়ে ‘এ’ ক্যাটেগরির কোম্পানিটির ১ কোটি ৩১ লাখ ২৩ হাজার ৯৫০টি শেয়ার ১৫৫ কোটি ৩২ হাজার টাকায় লেনদেন হয়, যা মোট লেনদেনের ৩ দশমিক ৯১ শতাংশ। সপ্তাহজুড়ে শেয়ারটির দর ২ দশমিক ২৫ শতাংশ বেড়েছে। এর পরের অবস্থানে থাকা সন্ধানী লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিমিটেডের ১০১ কোটি ৯৫ লাখ ৬১ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়, যা মোট লেনদেনের দুই দশমিক ৫৭ শতাংশ। গ্লোবাল ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের ৯২ কোটি ৩৪ লাখ ৬৮ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়, যা মোট লেনদেনর দুই দশমিক ৩৩ শতাংশ।

অন্যদিকে দেশের অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) ৩১৪টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৯৮টির, কমেছে ১৭৪টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৪২টির দর।

সিএসইতে গত সপ্তাহে সার্বিক সূচক সিএসসিএক্স কমেছে এক দশমিক ৩৪ শতাংশ। এছাড়া সিএএসপিআই সূচক এক দশমিক ৪৬ শতাংশ কমেছে, সিএসই৫০ সূচক কমেছে এক শতাংশ, সিএসআই সূচক শূন্য দশমিক ৬৬ শতাংশ কমেছে; তবে সিএসই৩০ সূচক দুই দশমিক ৩৬ শতাংশ কমেছে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..