কোম্পানি সংবাদ পুঁজিবাজার

ডিএসইতে দৈনিক গড় লেনদেন কমেছে ছয় দশমিক ১১ শতাংশ

সপ্তাহের ব্যবধান

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গত সপ্তাহে দৈনিক গড় লেনদেন কমেছে ছয় দশমিক ১১ শতাংশ। তবে বাজার মূলধন বেড়েছে ছয় দশমিক ৬৯ শতাংশ। সাপ্তাহিক বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ২৮৭ দশমিক ৫৪ পয়েন্ট বা পাঁচ দশমিক ১১ শতাংশ বেড়ে পাঁচ হাজার ৯০৯ দশমিক ৩১ পয়েন্টে স্থির হয়। ডিএসইএস বা শরিয়াহ্ সূচক ৫৭ দশমিক ৫৭ পয়েন্ট বা চার দশমিক ৫৫ শতাংশ বেড়ে এক হাজার ৩২৩ দশমিক ৫১ পয়েন্টে পৌঁছায়। ডিএস৩০ সূচক ১৮৮ দশমিক ৭১ পয়েন্ট বা ৯ দশমিক ২১ শতাংশ বেড়ে দুই হাজার ২৩৬ দশমিক ৭৮ পয়েন্টে স্থির হয়। মোট ৩৬৭টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৪৬টির, কমেছে ১৬৮টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৫০ কোম্পানির শেয়ারদর। লেনদেন হয়নি তিনটির। দৈনিক গড় লেনদেন হয় এক হাজার ৮৬৮ কোটি ৬৫ লাখ ৮৯ হাজার ৩৮৪ টাকা। আগের সপ্তাহে দৈনিক গড় লেনদেন হয় এক হাজার ৯৯০ কোটি ২৩ লাখ ৭৩ হাজার ৭৭৪ টাকা। এক সপ্তাহের ব্যবধানে দৈনিক গড় লেনদেন কমেছে ১২১ কোটি ৫৭ লাখ ৮৪ হাজার ৩৯০ টাকা বা ছয় দশমিক ১১ শতাংশ।

গত সপ্তাহে ডিএসইর টপটেন গেইনার তালিকার শীর্ষে উঠে আসে রবি আজিয়াটা লিমিটেড। আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির শেয়ারদর বেড়েছে ৪৭ দশমিক ২৭ শতাংশ। গত সপ্তাহে কোম্পানিটির প্রতিদিন গড় লেনদেন হয়েছে ১১৬ কোটি ১৭ লাখ ৪০০ টাকার শেয়ার। সপ্তাহ শেষে মোট লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়ায় ৫৮০ কোটি ৮৫ লাখ দুই হাজার টাকা।

তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে বাংলাদেশ এক্সপোর্ট-ইমপোর্ট কোম্পানি লিমিটেড। ‘বি’ ক্যাটেগরির কোম্পানিটির শেয়ারদর বেড়েছে ৩৩ দশমিক ২৩ শতাংশ। আলোচ্য সপ্তাহে কোম্পানিটির প্রতিদিন ১৬২ কোটি ৪৪ লাখ ২৩ হাজার ২০০ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ৮১২ কোটি ২১ লাখ ১৬ হাজার টাকার শেয়ার।

তালিকার তৃতীয় স্থানে রয়েছে লাফার্জহোলসিম বাংলাদেশ লিমিটেড। ‘এ’ ক্যাটেগরির এ কোম্পানিটির শেয়ারদর বেড়েছে ২৬ দশমিক ৬২ শতাংশ। আলোচ্য সপ্তাহে কোম্পানিটির প্রতিদিন ৭৮ কোটি ৮৯ লাখ ২২ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ৩৯৪ কোটি ৪৬ লাখ ১০ হাজার টাকার শেয়ার।

এর পরের অবস্থানে থাকা ‘এ’ ক্যাটেগরির আলিফ ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানি লিমিটেডের শেয়ারদর বেড়েছে ২৪ দশমিক ৬৯ শতাংশ। আলোচ্য সপ্তাহে কোম্পানিটির প্রতিদিন ১১ কোটি ২৭ লাখ ৫২ হাজার ৮০০ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ৫৬ কোটি ৩৭ লাখ ৬৪ হাজার টাকার শেয়ার।

এর পরের অবস্থানে থাকা ‘এ’ ক্যাটেগরির বাংলাদেশ স্টিল রি-রোলিং মিলস লিমিটেডের শেয়ারদর বেড়েছে ২২ দশমিক ৩৫ শতাংশ। আলোচ্য সপ্তাহে কোম্পানিটির প্রতিদিন ৯ কোটি ৭৪ লাখ তিন হাজার ৮০০ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ৪৮ কোটি ৭০ লাখ ১৯ হাজার টাকার শেয়ার। আর ষষ্ঠ অবস্থানে থাকা ‘এ’ ক্যাটেগরির সামিট পাওয়ার লিমিটেডের শেয়ারদর বেড়েছে ২২ দশমিক শূন্য ৯ শতাংশ। আলোচ্য সপ্তাহে কোম্পানিটির প্রতিদিন ৪০ কোটি ৭২ লাখ ৫৯ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ২০৩ কোটি ৬২ লাখ ৯৫ হাজার টাকার শেয়ার।

সপ্তম অবস্থানে থাকা ‘এ’ ক্যাটেগরির এশিয়া ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের শেয়ারদর বেড়েছে ২১ দশমিক শূন্য ৯ শতাংশ। আলোচ্য সপ্তাহে কোম্পানিটির প্রতিদিন তিন কোটি ১৯ লাখ ৮৭ হাজার ৮০০ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ১৫ কোটি ৯৯ লাখ ৩৯ হাজার টাকার শেয়ার।

এর পরের অবস্থানে থাকা ‘এ’ ক্যাটেগরির বিএসআরএম স্টিল লিমিটেডের শেয়ারদর বেড়েছে ২০ দশমিক ৪৯ শতাংশ। আলোচ্য সপ্তাহে কোম্পানিটির প্রতিদিন পাঁচ কোটি তিন লাখ ৫৮ হাজার ৮০০ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ২৫ কোটি ১৭ লাখ ৯৪ হাজার টাকার শেয়ার। পরের অবস্থানে থাকা ‘বি’ ক্যাটেগরির অ্যাপোলো ইস্পাত কমপ্লেক্স লিমিটেডের শেয়ারদর বেড়েছে ১৮ দশমিক ৬৭ শতাংশ। আলোচ্য সপ্তাহে কোম্পানিটির প্রতিদিন ৯ কোটি ৪০ লাখ ৬৮ হাজার ৬০০ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আর পুরো সপ্তাহে লেনদেন হয়েছে ৪৭ কোটি তিন লাখ ৪৩ হাজার টাকার শেয়ার।

ডিএসইতে টার্নওভারের দিক থেকে শীর্ষে ছিল বাংলাদেশ এক্সপোর্ট-ইমপোর্ট কোম্পানি লিমিটেড (বেক্সিমকো)। সপ্তাহজুড়ে ‘বি’ ক্যাটেগরির কোম্পানিটির ১০ কোটি ৬৪ লাখ ৬০ হাজার ৪৪টি শেয়ার ৮১২ কোটি ২১ লাখ ১৬ হাজার টাকায় লেনদেন হয়, যা মোট লেনদেনের আট দশমিক ৬৯ শতাংশ। সপ্তাহজুড়ে শেয়ারটির দর ৩৩ দশমিক ২৩ শতাংশ বেড়েছে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..