প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

ডিএসইতে দৈনিক গড় লেনদেন ১৪২৮ কোটি টাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক: দীর্ঘদিন পর দেশের পুঁজিবাজারে সুদিন ফিরেছে। বাজারে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগসহ সাধারণ বিনিয়োগকারীদের অংশগ্রহণ বাড়ছে। ফলে লেনদেনও বেড়ে চলেছে। গেল সপ্তাহে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে দৈনিক গড় লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৪২৮ কোটি টাকা। বাজারে স্বাভাবিক অবস্থা বিরাজ করলে লেনদেনের পরিমাণ আরও বাড়বে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

সাপ্তাহিক বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, ডিএসইতে আগের চেয়ে গেল সপ্তাহে দৈনিক গড় লেনদেনের পরিমাণ বেড়েছে ১৭০ কোটি টাকা। আগের সপ্তাহে দৈনিক গড় লেনদেনের পরিমাণ ছিল এক হাজার ২৫৭ কোটি ৫১ লাখ ১৪ হাজার ৪০২ টাকা।

এদিকে গেল সপ্তাহে ডিএসইর মোট টার্নওভারের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে সাত হাজার ১৪০ কোটি ২৫ লাখ ৭৮ হাজার ১৭৭ টাকা। আগের সপ্তাহে যার পরিমাণ ছিল ছয় হাজার ২৮৭ কোটি ৫৫ লাখ ৭২ হাজার টাকা। অর্থাৎ এক সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে টার্নওভার বেড়েছে ৮৫২ কোটি ৭০ লাখ টাকা বা ১৩ দশমিক ৫৬ শতাংশ।

গেল সপ্তাহে ডিএসইতে ৩৩১টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে বেড়েছে ২৪০টির, কমেছে ৭৯টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১১টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারদর। অপরদিকে সিএসইতে ২৯০টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে বেড়েছে ২১৯টি, কমেছে ৬৫টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ছয়টি কোম্পানির শেয়ারদর।

ডিএসইতে গত সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস রোববার বাজার মূলধনের পরিমাণ ছিল তিন লাখ ৪৯ হাজার ৩৪৯ কোটি ৬৪ লাখ ৮১ হাজার ১৩১ টাকা। শেষ কার্যদিবসে যার পরিমাণ দাঁড়িয়েছে তিন লাখ ৫৯ হাজার ২৬৯ কোটি ৫৭ লাখ ৪৬ হাজার টাকা। অর্থাৎ এক সপ্তাহের ব্যবধানে বাজার মূলধন বেড়েছে দুই দশমিক ৮৪ শতাংশ। ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের সপ্তাহের চেয়ে ১৬০ পয়েন্ট  বেড়ে গত সপ্তাহের শেষ দিন পাঁচ হাজার ১৮২ পয়েন্টে অবস্থান করছে। এছাড়া শরিয়া সূচক ডিএসইএস ২০ পয়েন্ট বেড়ে এক হাজার ২২২ পয়েন্টে এবং ডিএস ৩০ সূচক ৪৬ পয়েন্ট বেড়ে এক হাজার ৮৬৪ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

দেশের অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) এক সপ্তাহে সার্বিক সূচক সিএসসিএক্স বেড়েছে তিন দশমিক ১৯ শতাংশ। এছাড়া সিএএসপিআই সূচক বেড়েছে তিন দশমিক ১৫ শতাংশ, সিএসই৫০ সূচক তিন দশমিক শূন্য চার শতাংশ, সিএসআই শরিয়াহ সূচক দুই দশমিক ৩৭ শতাংশ এবং সিএসই৩০ সূচক দুই দশমিক ৭২ শতাংশ।

সিএসইতে গেল সপ্তাহে টার্নওভারের পরিমাণ ৪১৭ কোটি টাকা। যা আগের সপ্তাহের চেয়ে সামান্য বেড়েছে। আগের সপ্তাহে টার্নওভারের পরিমাণ ছিল ৩৭১ কোটি টাকা। গত সপ্তাহে ডিএসইর টপ টেন তালিকায় উঠে আসা কোম্পানির মধ্যে রয়েছে ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশ, প্রাইম ফাইন্যান্স ফাস্ট মিউচুয়াল ফান্ড, ফারইস্ট নিটিং অ্যান্ড ডায়িং ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড, সেন্ট্রাল ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড, সিমটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড, নর্দার্ন জেনারেল ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড, মার্কেন্টাইল ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড, আইসিবি এএমসিএল থার্ড এনআরবি মিউচুয়াল ফান্ড, পিপলস ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড ও প্রিমিয়ার ব্যাংক লিমিটেড। অপরদিকে ডিএসইতে টপ টেন লুজার তালিকায় উঠে আসা কোম্পানির মধ্যে রয়েছে : ফাইন ফুডস লিমিটেড, রহিমা ফুড করপোরেশন লিমিটেড, শ্যামপুর সুগার মিলস লিমিটেড, বিডি অটোকারস লিমিটেড, আরামিট সিমেন্ট, রেইনউইক যজ্ঞেশ্বর অ্যান্ড কোম্পানি (বিডি) লিমিটেড, জেমিনি সি ফুড লিমিটেড, সুহৃদ ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড, স্টাইল ক্রাফট লিমিটেড, ডেফোডিল কম্পিউটারস লিমিটেড।