প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

ডিএসইতে সূচকের পতন অব্যাহত লেনদেন কমেছে ১৪৮ কোটি টাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক: পুঁজিবাজারে টানা পতনের কারণে আস্থা হারাচ্ছে বিনিয়োগকারীরা। ফলে আতঙ্কের জেরে তাদের মধ্যে শেয়ার বিক্রির প্রবণতা বেড়েছে। অন্যদিকে বাজারে ক্রেতা সংকটের সৃষ্টি হয়েছে। এতে সূচকের টানা পতন অব্যাহত রয়েছে। গতকাল বুধবারও সূচকের পাশাপাশি লেনদেন কমেছে প্রায় ১৪৮ কোটি টাকা। বাজার বিশ্লেষণে দেখা গেছে, এদিন লেনদেনের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত সূচকের উত্থান-পতনের চিত্র দেখা হয়। দেশের আরেক পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সূচক ও লেনদেন কমেছে।

গতকাল প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ২৩ দশমিক ৮১ পয়েন্ট বা দশমিক ৩৮ শতাংশ কমে ছয় হাজার ১৮৭ দশমিক ৬৪ পয়েন্টে পৌঁছায়। ডিএসইএস বা শরিয়াহ্ সূচক ৩ দশমিক ৮২ পয়েন্ট বা দশমিক ২৭ শতাংশ কমে এক হাজার ৩৬৩ দশমিক ৪৫ পয়েন্টে অবস্থান করে। অন্যদিকে ডিএস৩০ সূচক ৭ দশমিক ০৬ পয়েন্ট বা দশমিক ৩০ শতাংশ কমে দুই হাজার ২৮৭ দশমিক ৯৮ পয়েন্টে স্থির হয়।

ডিএসইতে এদিন মোট ৩৭৫টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়। দর বেড়েছে ৭৬টির এবং কমেছে ২৫০টির। বাকি ৪৯টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ারদর অপরিবর্তিত ছিল। গতকাল ডিএসইতে লেনদেন হয় ৫১৩ কোটি ১১ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৬৬০ কোটি ৮৪ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসাবে গতকাল লেনদেন কমেছে ১৪৭ কোটি ৭২ লাখ টাকা। ডিএসইতে এদিন ১৩ কোটি ৫৩ লাখ ১১ হাজার ৭৮৯টি শেয়ার ১ লাখ ১৯ হাজার ১৪৯ বার হাতবদল হয়।

ডিএসইতে গতকাল টাকার অঙ্কে লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে বাংলাদেশ এক্সপোর্ট-ইমপোর্ট কোম্পানি (বেক্সিমকো) লিমিটেড। কোম্পানিটির ৪৬ কোটি ৪৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। শেয়ারটির দর ১ টাকা ৬০ পয়সা বেড়েছে। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেডের ২৫ কোটি ৯৩ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিটির শেয়ারদর অপরিবর্তিত ছিল। এছাড়া লেনদেনের শীর্ষ ১০-এ থাকা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে শাইনপুকুর সিরামিকস লিমিটেডের ২৪ কোটি ১২ লাখ, জেএমআই হসপিটাল অ্যান্ড রিকুইজিট ম্যানুফ্যাকচারিং লিমিটেডের ১৮ কোটি ছয় লাখ, ফরচুন শুজ লিমিটেডের ১৪ কোটি ৫৪ লাখ, এসিআই ফরমুলেশনস লিমিটেডের ১৩ কোটি ৭২ লাখ, স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের ১২ কোটি ৪৫ লাখ, জিএসপি ফাইন্যান্স কোম্পানি (বাংলাদেশ) লিমিটেডের ১২ কোটি ১৩ লাখ, সোনালী পেপার অ্যান্ড বোর্ড মিলস লিমিটেডের ৯ কোটি ৮৩ লাখ এবং বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের ৮ কোটি ৮৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।

গতকাল ৪ দশমিক ৬০ শতাংশ বেড়ে দরবৃদ্ধির শীর্ষে উঠে আসে সোনালী পেপার অ্যান্ড বোর্ড মিলস লিমিটেড। এর পরের অবস্থানে থাকা ন্যাশনাল লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের ৩ দশমিক ৯২ শতাংশ, লুবরেফ বাংলাদেশ লিমিটেডের ৩ দশমিক ৬৮ শতাংশ, গোল্ডেন হার্ভেস্ট এগ্রো ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের ৩ দশমিক ৬৪ শতাংশ, ভিএফএস থ্রেড ডায়িং লিমিটেডের তিন দশমিক ৪৭ শতাংশ শেয়ারদর বেড়েছে।

অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) প্রধান সূচক সিএসসিএক্স ৭২ দশমিক ৪৭ পয়েন্ট বা দশমিক ৬৬ শতাংশ কমে ১০ হাজার ৮৯৬ দশমিক ১৮ পয়েন্টে এবং সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ১২০ দশমিক ২২ পয়েন্ট বা দশমিক ৬৬ শতাংশ কমে ১৮ হাজার ১৬২ দশমিক ৪০ পয়েন্টে অবস্থান করে। সিএসইতে ২৬৮টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়েছে। দর বেড়েছে ৫১টির, কমেছে ১৮৭টির এবং ৩০টির দর অপরিবর্তিত ছিল।