কোম্পানি সংবাদ পুঁজিবাজার

ডিএসইতে সূচকের পতন হলেও বেড়েছে লেনদেন

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গতকাল সোমবার চলতি সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবসে সূচকের পতন হলেও লেনদেন আগের দিনের তুলনায় ৭৪ কোটি টাকা বেড়েছে। বাজার বিশ্লেষণে দেখা গেছে, গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ২০ দশমিক ১৮ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ৩১ শতাংশ কমে ছয় হাজার ৪০৪ দশমিক শূন্য তিন পয়েন্টে পৌঁছায়। আর ডিএসইএস বা শরিয়াহ্ সূচক তিন দশমিক ৫৮ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ২৫ শতাংশ কমে এক হাজার ৩৯০ দশমিক ২৬ পয়েন্টে অবস্থান করে। অন্যদিকে ডিএস৩০ সূচক ১৩ দশমিক ৭৪ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ৫৮ শতাংশ কমে দুই হাজার ৩২২ দশমিক ৭৩ পয়েন্টে স্থির হয়।

এদিকে ৬৮৬ কোটি টাকা কমে গতকাল বাজার মূলধন দাঁড়িয়েছে পাঁচ লাখ ৩৪ হাজার ৩৪৪ কোটি টাকায়। ডিএসইতে এদিন মোট ৩৭৪টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়। দর বেড়েছে ১১১টির এবং কমেছে ২২৯টির। বাকি ৩৪টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ারদর অপরিবর্তিত ছিল। গতকাল ডিএসইতে লেনদেন হয় এক হাজার ৪২৮ কোটি ৯৪ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল এক হাজার ৩৫৪ কোটি ৭০ লাখ টাকার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। অর্থাৎ লেনদেন বেড়েছে ৭৪ কোটি টাকা।

ডিএসইতে এদিন ৪৯ কোটি ৩৫ লাখ ১৭ হাজার ৯০৩টি শেয়ার দুই লাখ ৫৩ হাজার ১৩ বার হাতবদল হয়। গতকাল লেনদেনের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পতনের চিত্র দেখা গেছে। অন্যদিকে চিটাগং স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) সূচক কমলেও লেনদেন বেড়েছে।

ডিএসইতে গতকাল টাকার অঙ্কে লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে বারাকা পাওয়ার লিমিটেড। কোম্পানিটির ৭৫ কোটি ৩২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। শেয়ারটির দর চার টাকা ২০ পয়সা বেড়েছে। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা সাইফ পাওয়ারটেক লিমিটেডের ৪০ কোটি ৬৮ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিটির শেয়ারদর ৪০ পয়সা কমেছে। এছাড়া লেনদেনের শীর্ষ ১০-এ থাকা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে রয়েছে ব্রিটিশ আমেরিকান ট্যোবাকো বাংলাদেশ কোম্পানির ৪০ কোটি টাকা, বেক্সিমকো ৩৫ কোটি, ফুওয়াং সিরামিকের ৩৩ কোটি, জিপিএইচ ইস্পাতের ৩১ কোটি ৬১ লাখ, অ্যাকটিভ ফাইন কেমিক্যালসের ২৪ কোটি ২৫ লাখ, সেন্ট্রাল ইন্স্যুরেন্সের ২৩ কোটি ৩৪ লাখ, এসএস স্টিলের ২৩ কোটি ১৮ লাখ ও ওরিয়ন ফার্মা লিমিটেডের ২২ কোটি ৫৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।

এদিকে ৯ দশমিক ৯২ শতাংশ বেড়ে দর বৃদ্ধির শীর্ষে ছিল বারাকা পাওয়ার লিমিটেড। গ্লোবাল হেভি কেমিক্যালসের ৯ দশমিক ৮১ শতাংশ, সোনালী পেপারের আট দশমিক ৪৭ শতাংশ, সেন্ট্রাল ইন্স্যুরেন্সের আট দশমিক ২১ শতাংশ, সামিট অ্যালায়েন্স পোর্টের সাত দশমিক ৭৪ শতাংশ, ইসলামী ইন্স্যুরেন্সের সাত দশমিক ৭০ শতাংশ, সেন্ট্রাল ফার্মার ছয় দশমিক ১২ শতাংশ, অগ্নি সিস্টেমসের পাচ দশমিক ৫৭ শতাংশ, অলিম্পিক অ্যাকসেসরিজের পাঁচ দশমিক ৫৫ শতাংশ এবং জিপিএইচ ইস্পাতের পাচ দশমিক ২৩ শতাংশ শেয়ারদর বেড়েছে।

অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) প্রধান সূচক সিএসসিএক্স ৩৬ দশমিক ৭৪ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ৩২ শতাংশ কমে ১১ হাজার ১৮০ দশমিক ১০ পয়েন্ট এবং সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৫৬ দশমিক ৯৪ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ৩০ শতাংশ কমে ১৮ হাজার ৬১৬ দশমিক ২৭ পয়েন্টে অবস্থান করে। সিএসইতে ৩০৭টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়েছে। দর বেড়েছে ১০৮টির, কমেছে ১৫৫টির এবং ৪৪টির দর অপরিবর্তিত ছিল। সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৫৯ কোটি ৯৩ লাখ ৩৯ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৪০ কোটি ৭৮ লাখ ৭১ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। অর্থাৎ লেনদেন বেড়েছে ১৯ কোটি টাকা।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..