কোম্পানি সংবাদ পুঁজিবাজার

ডিএসইতে সূচকের মিশ্র প্রবণতায় কমেছে লেনদেন ও শেয়ারদর

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গতকাল বেশিরভাগ কোম্পানির দরপতনে সূচকের মিশ্র প্রবণতায় লেনদেন হয়েছে। লেনদেন আগের কার্যদিবসের তুলনায় কমেছে। গতকাল ডিএসইএক্স ও ডিএস৩০ সূচকের পতন হলেও ডিএসই শরিয়াহ্ সূচক বেড়েছে। গতকাল সূচকের উত্থান দিয়ে লেনদেন শুরু হয়। ৩০ মিনিটের মধ্যে বিক্রির চাপ বাড়লে সূচকে পতন নেমে আসে। এরপরে দেড় ঘণ্টা পর উত্থান হয়। দুপুর ১টার পরে ধারাবাহিক পতন শুরু হয়। লেনদেন শেষে ডিএসইএক্স সূচক ২৪ পয়েন্ট নেতিবাচক অবস্থানে চলে যায়। অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) সূচক ও শেয়ারদর এবং লেনদেন কমেছে।

বাজার পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে, গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ২৪ দশমিক ৮৬ পয়েন্ট বা দশমিক ৫২ শতাংশ কমে চার হাজার ৭৩৩ দশমিক ১৪ পয়েন্টে পৌঁছায়। ডিএসইএস বা শরিয়াহ্ সূচক দুই দশমিক ৭৯ পয়েন্ট বা দশমিক ২৫ শতাংশ বেড়ে এক হাজার ৮৯ দশমিক ৮১ পয়েন্টে অবস্থান করে। অন্যদিকে ডিএস৩০ সূচক ছয় দশমিক ৭৫ পয়েন্ট বা দশমিক ৪২ শতাংশ কমে এক হাজার ৫৯২ দশমিক ৮০ পয়েন্টে স্থির হয়।

গতকাল ডিএসইতে লেনদেন হয় ৭৭০ কোটি ৬০ লাখ ৮২ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৮৩৭ কোটি ১৫ লাখ ২৮ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। সে হিসেবে লেনদেন কমেছে ৬৬ কোটি ৫৪ লাখ ৪৬ হাজার টাকা। এদিন ২৫ কোটি ৭৭ লাখ ১০ হাজার ৫৬টি শেয়ার এক লাখ ৮৮ হাজার ৭৩২ বার হাতবদল হয়। গতকাল ডিএসইর বাজার মূলধন ৩৯৩ কোটি ৭১ লাখ টাকা কমে দাঁড়িয়েছে তিন লাখ ৫৯ হাজার ২৬২ কোটি ৫৫ লাখ ৪৬ হাজার টাকায়। লেনদেন হওয়া ৩৫৫টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ৮৩টির, কমেছে ২৪৩টির, অপরিবর্তিত ছিল ২৯টির দর।

গতকাল টাকার অঙ্কে লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে তথ্যপ্রযুক্তি খাতের গ্রামীণফোন লিমিটেড। কোম্পানিটির ৩৮ কোটি ৫৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। শেয়ারটির দর সাত টাকা ৩০ পয়সা বেড়েছে। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা লাফার্জহোলসিমের ১৫ কোটি ৭৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। দর কমেছে ২০ পয়সা। কনফিডেন্স সিমেন্টের ১৫ কোটি ৪৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। দর বেড়েছে তিন টাকা ৫০ পয়সা। এরপরের অবস্থানগুলোতে থাকা বিবিএস কেব্লসের ১৫ কোটি ৩২ লাখ টাকার, সামিট পাওয়ারের ১৪ কোটি দুই লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।

৯ দশমিক ৯৭ শতাংশ বেড়ে দর বৃদ্ধির শীর্ষে ছিল ইনফরমেশন সার্ভিসেস নেটওয়ার্ক লিমিটেড। এরপরে ৯ দশমিক ৯৬ শতাংশ বেড়েছে বাংলাদেশ স্টিল রি-রোলিং মিলস লিমিটেড। বিএসআরএম স্টিলের দর ৯ দশমিক ৭৪ শতাংশ, এস আলম কোল্ড রোল্ড স্টিলের দর ৯ দশমিক ৬০ শতাংশ, হাক্কানী পাল্পের দর ৯ দশমিক ৪৬ শতাংশ বেড়েছে।

অন্যদিকে আট দশমিক ৬০ শতাংশ দর কমে পতনের শীর্ষে উঠে আসে সিএপিএম বিডিবিএল মিউচুয়াল ফান্ড ওয়ান। আইসিবি এএমসিএল সেকেন্ড মিউচুয়াল ফান্ডের দর ছয় দশমিক ৯৭ শতাংশ কমেছে।

অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) প্রধান সূচক সিএসসিএক্স ১৬ দশমিক শূন্য চার পয়েন্ট বা দশমিক ১৮ শতাংশ কমে আট হাজার ৮১২ দশমিক ২৩ পয়েন্টে এবং সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৩০ দশমিক ১০ পয়েন্ট বা দশমিক ২০ শতাংশ কমে ১৪ হাজার ৫২৪ দশমিক ৭৩ পয়েন্টে অবস্থান করে। সিএসইতে ২৬৯টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়েছে। দর বেড়েছে ৭৫টির, কমেছে ১৬৯টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ২৫টির দর। সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ২৮ কোটি ৭৬ লাখ ৯২ হাজার ৪১৯ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৮৬ কোটি ৩৬ লাখ ৩৮ হাজার ২১৮ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসাবে লেনদেন কমেছে ৫৭ কোটি ৫৯ লাখ টাকা।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..