প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

ডিএসইতে সূচক ও লেনদেনেপতন অব্যাহত

নিজস্ব প্রতিবেদক: চলতি সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসের মতো দ্বিতীয় কার্যদিবস গতকাল সোমবারও ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সিংহভাগ কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার ও ইউনিটদর কমায় সূচকের পতন দেখা গেছে। একইসঙ্গে লেনদেন আগের কার্যদিবসের তুলনায় কমেছে। অন্যদিকে চিটাগং স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) একই চিত্র দেখা গেছে।

বাজার বিশ্লেষণে দেখা গেছে, গতকাল প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৫৩ দশমিক ৭৪ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ৭৫ শতাংশ কমে সাত হাজার ১৯ দশমিক ২৫ পয়েন্টে পৌঁছায়। ডিএসইএস বা শরিয়াহ্ সূচক তিন দশমিক শূন্য আট পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ২০ শতাংশ কমে এক হাজার ৫০৫ দশমিক শূন্য এক পয়েন্টে অবস্থান করে। অন্যদিকে ডিএস৩০ সূচক ১৫ দশমিক ১৮ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ৫৭ শতাংশ কমে দুই হাজার ৬১৪ দশমিক ২৬ পয়েন্টে স্থির হয়।

ডিএসইতে এদিন মোট ৩৮০টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়। দর বেড়েছে ৭১টির এবং কমেছে ২৭০টির। বাকি ৩৯টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ারদর অপরিবর্তিত ছিল। গতকাল ডিএসইতে লেনদেন হয় এক হাজার ২১৪ কোটি ৬২ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল এক হাজার ৪৮২ কোটি ৪৫ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসাবে গতকাল লেনদেন কমেছে ২৬৭ কোটি ৮২ লাখ টাকা।

ডিএসইতে এদিন ২৩ কোটি ৩৫ লাখ ৩৭ হাজার ৯৬টি শেয়ার দুই লাখ ১৯ হাজার ৫২৪ বার হাতবদল হয়। গতকাল লেনদেনের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পতনের চিত্র দেখা গেছে।

ডিএসইতে গতকাল টাকার অঙ্কে লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশন। কোম্পানিটির ১১৩ কোটি ৪৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। শেয়ারটির দর সাত টাকা ৯০ পয়সা কমেছে। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা বাংলাদেশ এক্সপোর্ট-ইমপোর্ট কোম্পানি (বেক্সিমকো) লিমিটেডের ৯৮ কোটি ১২ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিটির শেয়ারদর ছয় টাকা ৬০ পয়সা কমেছে। এছাড়া লেনদেনের শীর্ষ ১০-এ থাকা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি অব বাংলাদেশ লিমিটেডের ৩৬ কোটি ৭৫ লাখ, ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকো কোম্পানি লিমিটেডের ৩২ কোটি ৩২ লাখ, ফু-ওয়াং ফুড লিমিটেডের ৩২ কোটি ২৫ লাখ, এপেক্স ফুটওয়্যার লিমিটেডের ২৬ কোটি ১৪ লাখ টাকা, এশিয়া ইন্স্যুরেন্স লিমিটেডের ২১ কোটি ৬৮ লাখ, বাংলাদেশ সাবমেরিন কেব্ল কোম্পানি লিমিটেডের ২০ কোটি ছয় লাখ, ফরচুন শুজ লিমিটেডের ১৯ কোটি ৪৯ লাখ, এবং লিন্ডে বাংলাদেশ লিমিটেডের ১৮ কোটি ৩৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।

এদিকে ১০ শতাংশ বেড়ে দর বৃদ্ধির শীর্ষে উঠে আসে বিডি থাই ফুড লিমিটেড। এর পরের অবস্থানে থাকা ইউনিয়ন ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের ৯ দশমিক ৬৫ শতাংশ, এপেক্স ফুটওয়্যার লিমিটেডের আট দশমিক ৭৩ শতাংশ, ন্যাশনাল টি কোম্পানি লিমিটেডের সাত দশমিক ৪৯ শতাংশ, কোহিনুর কেমিক্যালস লিমিটেডের ছয় দশমিক ৯২ শতাংশ, আরামিট লিমিটেডের ছয় দশমিক ৫৫ শতাংশ, সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেডের ছয় দশমিক ৫৪ শতাংশ, সোনারগাঁও টেক্সটাইল লিমিটেডের পাঁচ দশমিক ৯১ শতাংশ, দেশ গার্মেন্টস লিমিটেডের পাঁচ দশমিক ৮৯ শতাংশ এবং ওরিয়ন ইনফিউশনস লিমিটেডের চার দশমিক ৯৪ শতাংশ শেয়ারদর বেড়েছে।

অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) প্রধান সূচক সিএসসিএক্স ৮৯ দশমিক ৯৬ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ৭২ শতাংশ কমে ১২ হাজার ৩৪৬ দশমিক ৪৯ পয়েন্টে এবং সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ১৪৯ দশমিক ৭৩ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ৭২ শতাংশ কমে ২০ হাজার ৫৫২ দশমিক ৩৯ পয়েন্টে অবস্থান করে। সিএসইতে ৩১১টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়েছে। দর বেড়েছে ৬৩টির, কমেছে ২১৩টির এবং ৩৫টির দর অপরিবর্তিত ছিল। গতকাল সিএসইতে লেনদেন হয় ৩৮ কোটি ৫৩ লাখ টাকার আর আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৩৮ কোটি ৮৫ লাখ টাকার।