কোম্পানি সংবাদ পুঁজিবাজার

ডিএসইতে সূচক ও লেনদেনে পতন

নিজস্ব প্রতিবেদক: গতকাল রোববার সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচক ও লেনদেন কমেছে। এদিন বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ারদর অপরিবর্তিত ছিল। বাকি শেয়ারের মধ্যে বেশিরভাগ শেয়ারের দর কমায় সূচক ও লেনদেন কমেছে। এদিন ডিএসইতে লেনদেন কমেছে প্রায় আট কোটি টাকার। গতকাল সূচক পতনের মধ্য দিয়ে বাজারে লেনদেন শুরু হয় এবং শেষ সময় পর্যন্ত পতনের ধারা অব্যাহত ছিল। অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক কমলেও লেনদেন বেড়েছে।

বাজার পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে, গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৫ দশমিক ২১ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ১৩ শতাংশ কমে তিন হাজার ৯৮১ দশমিক ৫২ পয়েন্টে পৌঁছায়। ডিএসইএস বা শরিয়াহ সূচক এক দশমিক শূন্য ছয় পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ১১ শতাংশ কমে ৯২১ দশমিক শূন্য চার পয়েন্টে অবস্থান করে। অন্যদিকে ডিএস৩০ সূচক ৩ দশমিক ৩৭ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ২৫ শতাংশ কমে এক হাজার ৩৩৬ দশমিক ১২ পয়েন্টে স্থির হয়।

গতকাল ডিএসইতে লেনদেন হয় ৭৩ কোটি ৪০ লাখ ৭০ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৮১ কোটি ১৮ লাখ ৫৪ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসাবে লেনদেন কমেছে সাত কোটি ৭৭ লাখ টাকার। এদিন ৩ কোটি ৮ লাখ ৪৭ হাজার ৮৬৩টি শেয়ার ২২ হাজার ৮৮৪ বার হাতবদল হয়।

এদিন মোট ২৮০টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়। দর বেড়েছে ৩০টির এবং কমেছে ৩৬টির। বাকি ২১৪টি কোম্পানির শেয়ারদর অপরিবর্তিত ছিল। গতকাল ডিএসইর বাজার মূলধন ২০২ কোটি ৩৫ লাখ ১৮ হাজার টাকা কমে দাঁড়িয়েছে তিন লাখ ১১ হাজার ৫৭২ কোটি ৮৪ লাখ ৫৯ হাজার টাকায়।

গতকাল টাকার অঙ্কে লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে ওয়াটা কেমিক্যালস লিমিটেড। কোম্পানিটির ৭ কোটি ২৯ লাখ ৮৬ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। শেয়ারটির দর ৩ টাকা ৩০ পয়সা কমেছে। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের ৪ কোটি ২৫ লাখ ৬৩ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। দর কমেছে ৭০ পয়সা। বাংলাদেশ সাবমেরিন কেব্ল কোম্পানি লিমিটেডের চার কোটি ২১ লাখ ২৬ হাজার টাকার, শেয়ারদর ২ টাকা ৭০ পয়সা কমেছে।

এরপরের অবস্থানগুলোতে থাকা গ্ল্যাক্সোস্মিথক্লাইনের ৩ কোটি ৫ লাখ টাকার, সোনারবাংলা ইন্স্যুরেন্সের দুই কোটি ২২ লাখ ৮০ হাজার টাকার, প্রভাতী ইন্স্যুরেন্সের ২ কোটি ৯ লাখ টাকার, ন্যাশনাল ব্যাংকের এক কোটি ৯৫ লাখ টাকার, সেন্ট্রাল ফার্মাসিউটিক্যালসের এক কোটি ৯০ লাখ ৯০ হাজার টাকার, ইন্দো-বাংলা ফার্মার এক কোটি ৮৭ লাখ টাকার এবং লিন্ডে বাংলাদেশের এক কোটি ৮৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।

১৪ দশমিক ৭৬ শতাংশ বেড়ে দরবৃদ্ধির শীর্ষে ছিল ইস্টার্ন ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড। প্যারামাউন্ট ইন্স্যুরেন্সের ৯ দশমিক ৯৭ শতাংশ, প্রভাতী ইন্স্যুরেন্সের ৮ দশমিক ৭৬ শতাংশ, সোনার বাংলা ইন্স্যুরেন্সের ৬ দশমিক ৯৭ শতাংশ, অগ্রণী ইন্স্যুরেন্সের ৬ দশমিক ৮১ শতাংশ, এশিয়া প্যাসিফিক জেনারেল ইন্স্যুরেন্সের ৬ দশমিক ২৮ শতাংশ, ফাইন ফুডসের ৪ দশমিক ৯৪ শতাংশ, গ্ল্যাক্সোস্মিথক্লাইনের ৪ দশমিক ৭৬ শতাংশ এবং পূরবী জেনারেল ইন্স্যুরেন্সের ৪ দশমিক ১৬ শতাংশ শেয়ারদর বেড়েছে।

অন্যদিকে ৯ দশমিক ০৯ শতাংশ দর কমে পতনের শীর্ষে উঠে আসে তুং হাই নিটিং অ্যান্ড ডায়িং লিমিটেড। এবি ব্যাংকের দর ৫ দশমিক ৫৫ শতাংশ, এমারাল্ড অয়েলের দর ৪ শতাংশ, ন্যাশনাল টির তিন দশমিক ৭৮ শতাংশ, কেয়া কসমেটিকসের তিন দশমিক ৩৩ শতাংশ, বাংলাদেশ সাবমেরিন কেব্লের তিন দশমিক ৩০ শতাংশ এবং এপোলো ইস্পাতের দর ২ দশমিক ৯৪ শতাংশ কমেছে।

অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) প্রধান সূচক সিএসসিএক্স ৯ দশমিক ২৮ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ১৩ শতাংশ কমে ছয় হাজার ৮৪৫ দশমিক ১৭ পয়েন্টে এবং সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ১৫ দশমিক ৩৭ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ১৩ শতাংশ কমে ১১ হাজার ৩০৫ দশমিক ৭৪ পয়েন্টে অবস্থান করে। সিএসইতে ১০০টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়েছে। দর বেড়েছে ১৭টির, কমেছে ২৩টির এবং ৬০টির দর অপরিবর্তিত ছিল। সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৮৯ কোটি ৩৩ লাখ ৪১ হাজার ১১৫ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল দুই কোটি ৩২ লাখ ৬২ হাজার ৮৬৯ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসাবে লেনদেন কমেছে ৮৭ কোটি ৭৮ হাজার টাকার। সিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে ছিল ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকো বাংলাদেশ লিমিটেড। কোম্পানিটির ৮৫ কোটি ৮ লাখ ৮০ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..