কোম্পানি সংবাদ পুঁজিবাজার

ডিএসইতে সূচক বাড়লেও লেনদেন কমেছে ১৩৪ কোটি টাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গতকাল বেশিরভাগ শেয়ারের দর বেড়েছে। সে সঙ্গে সূচকও সামান্য হারে ইতিবাচক ছিল। তবে মোট দেনদেন কমেছে ১৩৪ কোটি টাকা। দর বেড়েছে ৪৭ শতাংশ কোম্পানির। কমেছে ৩৮ শতাংশের। লেনদেনের শুরু থেকেই সূচকের গতিতে অস্থিরতা দেখা যায়। বারবার ওঠানামা করতে করতে সূচক ধীরে ধীরে নি¤œমুখী হতে থাকে। বেলা ১২টার পরে সূচক আগের দিনের চেয়ে ১২ পয়েন্ট নেমে যায়। এরপর ফের উঠানামা করতে করতে ধীরে ধীরে ঊর্ধ্বমুখী হতে থাকে। শেষ পর্যন্ত এক পয়েন্ট ইতিবাচক থাকতে বেড়েছে সূচক। টিটাগং স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক, শেয়ারদর ও লেনদেনে একই চিত্র লক্ষ্য করা গেছে।

বাজার পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে, গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স এক দশমিক শূন্য আট পয়েন্ট বা দশমিক শূন্য দুই শতাংশ বেড়ে চার হাজার ৭৩১ দশমিক ৪৩ পয়েন্টে অবস্থান করে।

ডিএসইএস বা শরিয়াহ্ সূচক দশমিক ১৮ পয়েন্ট বা দশমিক শূন্য এক শতাংশ বেড়ে এক হাজার ৮২ দশমিক ১৬ পয়েন্টে এবং ডিএস৩০ সূচক এক দশমিক ৩৭ পয়েন্ট বা দশমিক শূন্য আট শতাংশ বেড়ে এক হাজার ৬৪৭ দশমিক ৭০ পয়েন্টে অবস্থান করে। গতকাল ডিএসইর বাজার মূলধন ৪১৪ কোটি টাকা কমে দাঁড়িয়েছে তিন লাখ ৫৬ হাজার ৭০৩ কোটি ৮১ লাখ টাকায়। ডিএসইতে লেনদেন হয় ৪৩০ কোটি ২০ লাখ শূন্য তিন হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৫৬৪ কোটি ২২ লাখ ১৭ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসাবে লেনদেন কমেছে ১৩৪ কোটি টাকা। এদিন ১৮ কোটি ৭৬ লাখ ৪১ হাজার ৭৩৬টি শেয়ার এক লাখ ২৯ হাজার ১২৮ বার হাতবদল হয়। লেনদেন হওয়া ৩৪৩ কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১৬২টির, কমেছে ১৩১টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৫০টির দর।

গতকাল টাকার অঙ্কে লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে ফরচুন শুজ। কোম্পানিটির ১৪ কোটি ৭৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। দর কমেছে ৬০ পয়সা। এরপর ন্যাশনাল টিউবসের ১৪ কোটি ৫৬ লাখ টাকা লেনদেন হয়। দর কমেছে ১৬ টাকা ৩০ পয়সা। স্কয়ার ফার্মার ১০ কোটি ২৫ লাখ টাকা লেনদেন হয়। দর কমেছে তিন টাকা ৮০ পয়সা। প্যারামাউন্ট টেক্সটাইলের ১০ কোটি ১০ লাখ টাকা লেনদেন হয়। দর বেড়েছে এক টাকা ৭০ পয়সা। লংকাবাংলা ফাইন্যান্সের ১০ কোটি টাকা লেনদেন হয়। দর বেড়েছে এক টাকা। এছাড়া কাট্টলী টেক্সটাইলের ৯ কোটি ৮২ লাখ টাকা, লাফার্জহোলসিমের সাত কোটি ৬৮ লাখ টাকা, ডরিন পাওয়ারের সাত কোটি ৪৫ লাখ টাকা, আলিফ ম্যানুফ্যাকচারিংয়ের ছয় কোটি ৬৫ লাখ ও প্রিমিয়ার ব্যাংকের ছয় কোটি ৩৩ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।

১০ শতাংশ বেড়ে দর বৃদ্ধির শীর্ষে উঠে আসে আলিফ ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানি ও লাফার্জহোলসিম বাংলাদেশ। বঙ্গজের দর ৯ দশমিক ৯৭ শতাংশ, মেট্রো স্পিনিংয়ের দর ৯ দশমিক ৬৭ শতাংশ, ফু ওয়াং সিরামিকের দর ৯ দশমিক ৫৮ শতাংশ, জাহিন স্পিনিংয়ের দর ৯ দশমিক ৫৮ শতাংশ, ইয়াকিন পলিমারের দর ৯ দশমিক ২৭ শতাংশ, ফ্যামিলি টেক্সের দর আট দশমিক ৬৯ শতাংশ, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইলের দর আট দশমিক ২৩ শতাংশ, ম্যাকসন্স স্পিনিংয়ের দর সোয়া আট শতাংশ বেড়েছে।

এছাড়া ১৫ দশমিক শূন্য তিন শতাংশ দর কমে এমএল ডায়িং দরপতনের শীর্ষে উঠে আসে। ন্যাশনাল টিউবসের দর ১০ দশমিক ৩১ শতাংশ কমেছে। মেঘনা কনডেন্সড মিল্কের দর আট দশমিক ৬৯ শতাংশ, পাওয়ার গ্রিডের দর সোয়া আট শতাংশ, সিলকো ফার্মার দর ছয় দশমিক ৫২ শতাংশ, শেফার্ড ইন্ডাস্ট্রিজের দর ছয় দশমিক ৩৪ শতাংশ, এস আলম কোল্ড রোলড স্টিলের দর ছয় শতাংশ, মতিন স্পিনিংয়ের দর পৌনে ছয় শতাংশ, মেঘনা পিইটি ইন্ডাস্ট্রিজের দর চার দশমিক ৭৬ শতাংশ, আইসিবি এমপ্লয়িজ প্রভিডেন্ড মিউচুয়াল ফান্ডের দর চার দশমিক ২৫ শতাংশ কমেছে।

অন্যদিকে সিএসইতে গতকাল সিএসসিএক্স মূল্যসূচক সাত দশমিক ৯৬ পয়েন্ট বা দশমিক শূন্য ৯ শতাংশ বেড়ে আট হাজার ৭৪৩ দশমিক ৩৬ পয়েন্টে এবং সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ১১ দশমিক ৮৩ পয়েন্ট বা দশমিক শূন্য আট শতাংশ বেড়ে ১৪ হাজার ৩৯২ দশমিক ৪৩ পয়েন্টে অবস্থান করে। গতকাল সর্বমোট ২৫০ কোম্পানি এবং মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১১৮টির, কমেছে ১০৫টির, অপরিবর্তিত ছিল ২৭টির দর।

সিএসইতে এদিন ২৫ কোটি ৭৫ লাখ ৯ হাজার ৩০৯ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ২৬ কোটি ৫৫ লাখ ৯০ হাজার ৩৯১ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসেবে লেনদেন কমেছে ৮১ লাখ টাকা।

সিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে অবস্থান করে সিলকো ফার্মা। কোম্পানিটির চার কোটি ৩২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। এর পরের অবস্থানগুলোয় থাকা ডরিন পাওয়ারের দুই কোটি ৯১ লাখ টাকার, ব্যাংক এশিয়ার এক কোটি ৮০ লাখ, সিমটেক্সের এক কোটি পাঁচ লাখ, লংকাবাংলা ফাইন্যান্সের ৮৭ লাখ, বেক্সিমকোর ৫৩ লাখ, ফরচুন শুজ ৪৪ লাখ, লাফার্জহোলসিম ৪০ লাখ, প্রিমিয়ার ব্যাংকের ৪০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..