প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

ডিএসইতে ৬৫% কোম্পানির শেয়ারের দর কমেছে

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) টানা ১০ কার্যদিবস সূচকের উত্থানের পর গতকাল প্রায় ৬৫ শতাংশ কোম্পানির দরপতন হয়েছে। এদিন ডিএসইতে সূচকের সঙ্গে লেনদেনও কমেছে। অন্য বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) একই চিত্রে লেনদেন শেষ হয়েছে। বাজারসংশ্লিষ্টদের মতে, মুনাফা তোলার কারণে গতকাল শেয়ার বিক্রির চাপ ছিল। সে কারণেই  দরপতন হয়েছে  বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ারের।

এদিকে গতকালের বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, রোববার ডিএসইতে এক হাজার ৭৫ কোটি ১২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে, যা আগের দিনের তুলনায় ১৭০ কোটি ৩৬ লাখ টাকা কম। আগের দিন এ বাজারে এক হাজার ২৪৫ কোটি ৪৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছিল। এদিন ডিএসইতে মোট লেনদেনে অংশ নেয় ৩২৬টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৮৯টির, কমেছে ২১১টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৬টির শেয়ার দর।

অন্যদিকে গতকাল ডিএসইএক্স বা প্রধান মূল্যসূচক ২৩ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৫ হাজার ১৫৮ পয়েন্টে। ডিএসইএস বা শরিয়াহ সূচক ৩ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে এক হাজার ২১৮ পয়েন্টে। আর ডিএস৩০ সূচক ৩ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে এক হাজার ৮৬০ পয়েন্টে।

গতকাল ডিএসইর লেনদেনের শীর্ষ কোম্পানিগুলো হলো বেক্সিমকো, পেনিনসুলা চট্টগ্রাম, আরএসআরএম স্টিল, ইফাদ অটোস, বাংলাদেশ বিল্ডিং সিস্টেমস, সাইফ পাওয়ার, আর্গন ডেনিমস, শাশা ডেনিমস, বিডি থাই ও এ্যাপোলো ইস্পাত।

আর দরবৃদ্ধির শীর্ষ কোম্পানিগুলো হলো ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশ, রংপুর ফাউন্ড্রি লিমিটেড, নর্দার্ন জুটস ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানি লিমিটেড, হাক্কানী পাল্প ও পেপার মিলস লিমিটেড, ফারইস্ট নিটিং অ্যান্ড ডায়িং ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড, সিঙ্গার বিডি লিমিটেড, এমবি ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটড, সোনালী আঁশ ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড, অগ্নি সিস্টেমস লিমিটেড ও ন্যাশনাল টি কোম্পানি লিমিটেড।

অন্যদিকে গতকাল দর কমার শীর্ষ কোম্পানিগুলো হলো  সমতা লেদার কমপ্লেক্স লিমিটেড, ইবিএল এনআরবি মিউচুয়াল ফান্ড, সুহৃদ ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড, ফাস্ট ফাইন্যান্স লিমিটেড, ইয়াকিন পলিমার লিমিটেড, এমারেল্ড অয়েল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড, রিপাবলিক ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড, ইউনিয়ন ক্যাপিটাল লিমিটেড,  আরএন স্পিনিং মিলস লিমিটেড ও মাইডাস ফাইন্যান্স লিমিটেড।

এদিকে আইডিএলসি ইনভেস্টমেন্টের বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, রোববারে সকাল থেকেই বিনিয়োগকারীদের মুনাফা তোলার প্রবণতা দেখা যায়। দিনটিতে স্বল্প মূলধনি কোম্পানিকে ঘিরে লেনদেন চলে। বেশ কিছু স্বল্প মূলধনি কোম্পানির বিক্রেতাশূন্য অবস্থায় লেনদেন চলে। দিনটিতে সার্বিক সূচক কমেছে দশমিক ৫ শতাংশ। সব মিলিয়ে সার্বিকভাবে ডিএসইতে লেনদেন কমেছে ১৩.৭০ শতাংশ।

অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) সূচকের পতনে লেনদেন শেষ হয়েছে। সিএসইতে ৫৮ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। সিএসই সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ১০৫ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৫ হাজার ৮৩৩ পয়েন্টে। সিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ২৬৩টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৫৮টির, কমেছে ১৮৩টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২২টির।