প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

ডিএসইর টার্নওভার বেড়েছে এক হাজার ৯৮৬ কোটি টাকা: সিএসইতে টার্নওভার বেড়েছ ৩৭১ কোটি টাকা

 

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) নতুন বছরে শুরুতে গত এক সপ্তাহের ব্যবধানে টার্নওভার বেড়েছে। এ সময়ে ডিএসইর টার্নওভার বেড়েছে এক হাজার ৯৮৬ কোটি টাকা ৫৩ লাখ ১৬ হাজার টাকা বা ৪৬ দশমিক ১৬ শতাংশ। গেল সপ্তাহে ডিএসইর টার্নওভারের পরিমাণ ছিল ৬ হাজার ২৮৭ কোটি ৫৫ লাখ টাকা। পাশাপাশি চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে একই চিত্র লক্ষ করা গেছে।

সাপ্তাহিক বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, গেল সপ্তাহে ডিএসইতে ৩৩০টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে বেড়েছে ২৫১টির, কমেছে ৬০টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৭টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারদর। আগের সপ্তাহে ডিএসইতে ৩৩১টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে বেড়েছে ২২১টির, কমেছে ১০২টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৬টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারদর।

ডিএসইতে গত সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস রোববার বাজার মূলধন পরিমাণ ছিল তিন লাখ ৪১ হাজার ২৪৪ কোটি ১৪ লাখ ৯২ হাজার ৭৮০ টাকা। শেষ কার্যদিবসে যার পরিমাণ দাঁড়িয়েছে তিন লাখ ৪৯ হাজার ৩৪৯ কোটি ৮৬ লাখ ৮১ হাজার ১৩১ টাকা। অর্থাৎ এক সপ্তাহের ব্যবধানে বাজার মূলধন বেড়েছে ২ দশমিক ৩৮ শতাংশ। ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের সপ্তাহের চেয়ে ১৪৬ পয়েন্ট বেড়ে গত সপ্তাহের শেষ দিন পাঁচ হাজার ১৮২ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে এবং শরিয়া সূচক ডিএসইএস ৩০ পয়েন্ট বেড়ে এক হাজার ২২২ পয়েন্টে এবং ডিএস ৩০ সূচক ৫৩ পয়েন্টে বেড়ে এক হাজার ৮৬৪ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

দেশের অন্য পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) এক সপ্তাহে সার্বিক সূচক সিএসসিএক্স বেড়েছে ২ দশমিক ৮৯ শতাংশ। এছাড়া সিএএসপিআই সূচক বেড়েছে ২ দশমিক ৯৭ শতাংশ, সিএসই৫০ সূচক ২ দশমিক ৬৭ শতাংশ এবং সিএসআই শরিয়াহ সূচক ২ দশমিক ৭৬ শতাংশ এবং সিএসই৩০ সূচক ২ দশমিক ৩২ শতাংশ। সিএসইতে গেল সপ্তাহে টার্নওভারের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৩৭১ কোটি টাকা, যা আগের সপ্তাহের চেয়ে বেড়েছে। আগের সপ্তাহে যার পরিমাণ ছিল ২৮২ কোটি টাকা।

গত সপ্তাহে ডিএসইর টপ টেন গেইনার তালিকায় উঠে আসা কোম্পানির মধ্যে রয়েছে কন্টিনেন্টাল ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড, অরামিট সিমেন্ট, জাহিন স্পিনিং লিমিটেড, শমরিতা হাসপাতাল লিমিটেড, এইচআর টেক্সটাইল লিমিটেড, দি পেনিনসুলা চিটাগং লিমিটেড, বাংলাদেশ এক্সপোর্ট ইমপোর্ট কোম্পানি লিমিটেড, জেমিনি সি ফুড লিমিটেড, রংপুর ফাউন্ড্রি লিমিটেড, আরগন ডেনিমস কোম্পানি লিমিটেড।

অন্যদিকে ডিএসইতে টপ টেন লুজার তালিকায় উঠে আসা কোম্পানির মধ্যে রয়েছে জিলবাংলা সুগার মিলস লিমিটেড, শ্যামপুর সুগার মিলস লিমিটেড, খুলনা প্রিন্টিং অ্যান্ড প্যাকেজিং লিমিটেড, মেঘনা কনডেন্সড মিল্ক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড, মাইডাস ফাইন্যান্সিং লিমিটেড, আইসিবি ইসলামিক ব্যাংক লিমিটেড, ন্যাশনাল লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড, প্রাইম ফাইন্যান্স ফার্স্ট মিউচুয়াল ফান্ড, ইস্টল্যান্ড ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড, ফনিক্স ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড।

সিএসইতে সাপ্তাহিক টপ টেন গেইনার তালিকার শীর্ষে উঠে কোম্পানির মধ্যে রয়েছে অলটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড, কন্টিনেন্টাল ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড, অরামিট সিমেন্ট লিমিটেড, সোনারগাঁও টেক্সটাইলস লিমিটেড, জাহিন স্পিনিং লিমিটেড, আইসিবি এএমসিএল ফার্স্ট এনবিআর মিউচুয়াল ফান্ড, শমরিতা হাসপাতাল লিমিটেড, ইমাম বাটন ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড, দি পেনিনসুলা চিটাগং লিমিটেড, আরএ স্পিনিং মিলস লিমিটেড।

অন্যদিকে টপ টেন লুজার কোম্পানির তালিকায় উঠে আসা কোম্পানির মধ্যে  ফার্স্ট স্কিম অব রিলায়েন্স ইন্স্যুরেন্স মিউচুয়াল ফান্ড, মাইডাস ফাইন্যান্সিং লিমিটেড, সমতা লেদার কমপ্লেক্স লিমিটেড, ন্যাশনাল লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড, ফনিক্স ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড, প্রাইম ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স, খুলনা প্রিন্টিং অ্যান্ড প্যাকেজিং লিমিটেড, প্যারামাউন্ট ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড, ভ্যানগার্ড এএমএল বিডি ফাইন্যান্স মিউচুয়াল ফান্ড, মিরাকেল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড।