দিনের খবর প্রচ্ছদ প্রথম পাতা

ডিএসইর নতুন এমডি কাজী ছানাউল হক সিএসইতে মামুন-উর-রশিদ

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশের উভয় পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চিটাগং স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) নতুন ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) নিয়োগের প্রস্তাব অনুমোদন করেছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)।

গতকাল বিএসইসির কমিশন সভায় ডিএসইর এমডি পদে কাজী ছানাউল হক ও সিএসইর এমডি পদে মামুন-উর-রশিদের নিয়োগের প্রস্তাব অনুমোদন করা হয়।

এর আগে গত ৯ জানুয়ারি ডিএসইর পরিচালকদের সংখ্যাগরিষ্ঠতার ভিত্তিতে কাজী ছানাউল হককে এমডি হিসেবে নির্বাচন করা হয়। একই দিন পর্ষদ নির্বাচনের বিষয়টি অনুমোদন চেয়ে কমিশনে চিঠি দেয় ডিএসই।

বিএসইসির এমডি নিয়োগের জন্য ডিএসইকে ১২ জানুয়ারি পর্যন্ত সময় বেঁধে দিয়েছিল। এ সময় ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন প্রতিষ্ঠানটির প্রধান অর্থ কর্মকর্তা (সিএফও) আবদুল মতিন পাটোয়ারী। যদিও দুই দফায় বিজ্ঞপ্তি দিয়েও যোগ্য এমডি খুঁজে পায়নি ডিএসই।

এমডি নিয়োগে পত্রিকায় দুই দফা বিজ্ঞপ্তি দিয়েছিল ডিএসই। দুই দফায় আবেদন থেকে সাত প্রার্থীকে প্রাথমিকভাবে বাছাই করা হয়। এসব প্রার্থীর সাক্ষাৎকার নিয়ে প্রাথমিকভাবে তিনজনের নাম চূড়ান্ত করে পর্ষদে পাঠায় নিয়োগসংক্রান্ত নমিনেশন অ্যান্ড রিমুনারেশন কমিটি (এনআরসি)। কিন্তু এ তিন প্রার্থী থেকে এমডি নিয়োগে সক্ষম হয়নি পর্ষদ। তাই এ পদে নিয়োগে তিন মাস সময়ের জন্য বিএসইসিতে আবেদন করার সিদ্ধান্ত নেয় ডিএসই।

উল্লেখ্য, ব্যবস্থাপনা থেকে মালিকানা পৃথক করতে ডিমিউচুয়ালাইজেশন স্কিমের পর দ্বিতীয় ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে ২০১৬ সালের ২৯ জুন নিয়োগ পান কেএএম মাজেদুর রহমান। তার মেয়াদ শেষ হয়েছে গত ১১ জুলাই। এরপর থেকেই পদটি খালি রয়েছে।

বিধিমালা অনুসারে গত বছরের ৩০ অক্টোবরের মধ্যে ডিএসইর এমডির শূন্যপদ পূরণের কথা থাকলেও ডিএসই যোগ্য এমডি না পাওয়ায় বিএসইসি সে সময় বাড়িয়ে দিয়েছে।

কাজী ছানাউল হক ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশের (আইসিবি) সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক আর মামুন-উর-রশিদ স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..