কোম্পানি সংবাদ পুঁজিবাজার

ডিএসইর লেনদেন ৫০০ কোটিতে, সূচকে মিশ্র প্রবণতা

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গতকাল বেশিরভাগ শেয়ারের দর বেড়েছে। এতে প্রধান সূচক ইতিবাচক হলেও বাকি দুই সূচক নেতিবাচক ছিল। তবে লেনদেন প্রায় ১০০ কোটি টাকা বেড়ে ৫০০ কোটি ছাড়িয়েছে। দর বেড়েছে ৪৭ শতাংশ কোম্পানির। কমেছে ৪২ শতাংশের দর। লেনদেনের শুরুতেই শেয়ার কেনার চাপে সূচকের উত্থান হয়। এরপর মোটামুটি স্থিতিশীল অবস্থানে থেকে লেনদেন শেষ হয়। লেনদেন শেষে প্রধান সূচক ২৭ পয়েন্ট ইতিবাচক থাকলেও বাকি দুই সূচক পতনে ছিল। চিটাগং স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক, শেয়ারদর ইতিবাচক হলেও লেনদেন কমেছে। 

বাজার পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে, গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ২৭ দশমিক ৩৭ পয়েন্ট বা দশমিক ৫৭ শতাংশ বেড়ে চার হাজার ৭৫৮ দশমিক ৮১ পয়েন্টে অবস্থান করে।

ডিএসইএস বা শরিয়াহ্ সূচক চার দশমিক ৫৩ পয়েন্ট বা দশমিক ৪১ শতাংশ কমে এক হাজার ৭৭ দশমিক ৬৩ পয়েন্টে এবং ডিএস৩০ সূচক দুই দশমিক ৮৭ পয়েন্ট বা দশমিক ১৭ শতাংশ কমে এক হাজার ৬৪৪ দশমিক ৮৩ পয়েন্টে অবস্থান করে। গতকাল ডিএসইর বাজার মূলধন ২৪৬ কোটি টাকা বেড়ে দাঁড়িয়েছে তিন লাখ ৫৬ হাজার ৯৪৯ কোটি ৯২ লাখ টাকায়। ডিএসইতে লেনদেন হয় ৫২১ কোটি ৬৪ লাখ ৮৯ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৪৩০ কোটি ২০ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসেবে লেনদেন বেড়েছে ৯১ কোটি ৪৪ লাখ টাকা। এদিন ২৪ কোটি ২৭ লাখ এক হাজার ৫০০ শেয়ার এক লাখ ৪৪ হাজার ৩১৬ বার হাতবদল হয়। লেনদেন হওয়া ৩৫৩ কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১৬৬টির, কমেছে ১৫০টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৩৭টির দর।

গতকাল টাকার অঙ্কে লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে লাফার্জহোলসিম। কোম্পানিটির ২৮ কোটি ৩৩ লাখ ৬৮ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। দর বেড়েছে ৮০ পয়সা। এরপর ফরচুন শুজের ১৫ কোটি ২২ লাখ টাকা লেনদেন হয়। দর কমেছে ৭০ পয়সা। ইউনাইটেড ফাইন্যান্সের ১৪ কোটি ৫৪ লাখ টাকা লেনদেন হয়। দর বেড়েছে এক টাকা ২০ পয়সা। প্যারামাউন্ট ইন্স্যুরেন্সের ১৩ কোটি ৫৭ লাখ টাকা লেনদেন হয়। দর বেড়েছে দুই টাকা ৬০ পয়সা। লংকাবাংলা ফাইন্যান্সের ১০ কোটি ১৬ লাখ টাকা লেনদেন হয়। দর বেড়েছে ১০ পয়সা। এছাড়া ডাচ্-বাংলা ব্যাংকের ৯ কোটি ৭৮ লাখ টাকা, সুহƒদ ইন্ডাস্ট্রিজের ৯ কোটি ৩০ লাখ টাকা, বীকন ফার্মার ৯ কোটি ১১ লাখ টাকা, প্রিমিয়ার ব্যাংকের আট কোটি ৮২ লাখ টাকা ও বেক্সিমকোর আট কোটি ৬৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।   

১০ শতাংশ বেড়ে দর বৃদ্ধির শীর্ষে উঠে আসে প্রিমিয়ার লিজিং ও জাহিন স্পিনিং। বিডি ফাইন্যান্সের দর ৯ দশমিক ৯০ শতাংশ, প্যারামাউন্ট ইন্স্যুরেন্সের ৯ দশমিক ৮৮ শতাংশ, প্রাইম ফাইন্যান্স ফার্স্ট মিউচুয়াল ফান্ডের ৯ দশমিক ৭২ শতাংশ, ইউনিয়ন ক্যাপিটালের ৯ দশমিক শূন্য ৯ শতাংশ, এ্যাপোলো ইস্পাতের আট দশমিক ৮৮ শতাংশ, ফাস ফাইন্যান্সের আট দশমিক ৮২ শতাংশ, ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেসের আট দশমিক ৭৭ শতাংশ ও ফ্যামিলি টেক্সের দর আট শতাংশ বেড়েছে।    

এছাড়া ৫৬ দশমিক ৪৯ শতাংশ দর কমে শীর্ষে উঠে আসে স্টাইলক্রাফট। রেকর্ড ডেটের পর গতকাল দর সমন্বয় হয় কোম্পানিটির। অ্যাকটিভ ফাইনের দর কমেছে ১১ দশমিক ৫১ শতাংশ। বঙ্গজের ১০ দশমিক ৯৫ শতাংশ, কুইন সাউথের ১০ দশমিক ৯৪ শতাংশ, ওরিয়ন ফার্মার সাত দশমিক ৬৪ শতাংশ, স্ট্যান্ডার্ড সিরামিকের সাত দশমিক ৪৩ শতাংশ, হামিদ ফেব্রিকসের ছয় দশমিক ৮০ শতাংশ ও বিডি অটোকারের দর সোয়া ছয় শতাংশ কমেছে।    

অন্যদিকে সিএসইতে গতকাল সিএসসিএক্স মূল্যসূচক ৩৮ দশমিক ৭৩ পয়েন্ট বা দশমিক ৪৪ শতাংশ বেড়ে আট হাজার ৭৮২ দশমিক ১০ পয়েন্টে এবং সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৬৮ দশমিক ২৫ পয়েন্ট বা দশমিক ৪৭ শতাংশ বেড়ে ১৪ হাজার ৪৬০ দশমিক ৬৯ পয়েন্টে অবস্থান করে। গতকাল সর্বমোট ২৪৮ কোম্পানি এবং মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়। এর মধ্যে দর

বেড়েছে ১২৯টির, কমেছে ৯৮টির, অপরিবর্তিত ছিল ২১টির দর।

সিএসইতে এদিন ২৫ কোটি ৩৮ হাজার ৪১৬ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ২৫ কোটি ৭৫ লাখ ৯ হাজার ৩০৮ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসেবে লেনদেন কমেছে ৭৫ লাখ টাকা।

সিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে অবস্থান করে লাফার্জহোলসিম। কোম্পানিটির এক কোটি ৮৩ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। এর পরের অবস্থানগুলোয় থাকা সায়হাম টেক্সের এক কোটি ৩১ লাখ টাকার, বেক্সিমকোর এক কোটি ২৫ লাখ টাকার, আইপিডিসির এক কোটি টাকার, প্রগতি লাইফের ৯৯ লাখ টাকার, লংকাবাংলা ফাইন্যান্সের ৮৮ লাখ টাকার, আইএফআইসির ৭৬ লাখ টাকার, অ্যাকটিভ ফাইনের ৭১ লাখ টাকার ও বসুন্ধরা পেপার মিলের ৬৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..