প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

ডিএসএসএল সমন্বিত সোয়েটার ও স্পিনিং প্রকল্পের অব্যাহত প্রবৃদ্ধি

ড্রাগন সোয়েটার অ্যান্ড স্পিনিং লিমিটেড (ডিএসএসএল) দক্ষিণ এশিয়ার বৃহত্তম সমন্বিত সোয়েটার ও স্পিনিং প্রকল্পগুলোর মধ্যে একটি। শুরু থেকেই তাদের বিশ্বমানের সোয়েটার ও পুলওভার পণ্য বিশ্বের নেতৃস্থানীয় ক্রেতাদের মনোযোগ আকর্ষণ করতে সক্ষম হয়েছে। ডিএসএসএল ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সঙ্গে তালিকাভুক্ত প্রতিষ্ঠান, যার পরিশোধিত মূলধন ২০০ কোটি টাকা।

দূরদর্শী উদ্যোক্তা হিসেবে ড্রাগন গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান মোস্তফা গোলাম কুদ্দুস হংকং ও চীনের প্রযুক্তিগত সহযোগিতায় আশির দশকের গোড়ার দিকে ঢাকার মালিবাগে দেশের প্রথম সোয়েটার প্রকল্প হিসেবে ডিএসএসএল চালু করেন। প্রতিষ্ঠানটি এ পর্যন্ত ১০ লাখেরও বেশি লোককে সরাসরি কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি করে দিয়েছে। ৩০ বছরে ড্রাগন গ্রুপ বিশাল অপারেশনাল সিনার্জি অর্জনের জন্য ব্যাকওয়ার্ড লিংকেজে প্রচুর পরিমাণে বিনিয়োগ করেছে, যার ফলে পণ্যের উৎপাদন খরচ কমেছে এবং ডেলিভারির সময়ও কমে গেছে। ড্রাগন গ্রুপ তার রপ্তানি চাহিদা মেটাতে প্রয়োজনীয় সব সুতা নিজেই উৎপাদন করে এবং রপ্তানির ক্ষেত্রে উচ্চ গুণমান এবং অতুলনীয় দক্ষতা বজায় রাখে।

অপারেশনাল সিনার্জি অর্জনের জন্য ড্রাগন গ্রুপের আরেকটি কারখানা ড্রাগন সোয়েটারস বাংলাদেশ লিমিটেড (ডিএসবিএল) ১৯৯১ সাল থেকে সফলভাবে পরিচালনা করা হচ্ছে এবং এর পরিশোধিত মূলধন ৪২৪ কোটি টাকা। সম্প্রতি এটি ঢাকা থেকে কুমিল্লায় স্থানান্তরিত করার জন্য উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

স্থান পরিবর্তনের বিষয়ে ড্রাগন গ্রুপের চেয়ারম্যান মোস্তফা গোলাম কুদ্দুস বলেন, ড্রাগন সোয়েটার দক্ষিণ এশিয়ার অন্যতম সবচেয়ে বড় সমন্বিত প্রকল্প। এর ক্লায়েন্ট বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় ক্রেতাদের অনেকেই। আমাদের মূল্যবান ক্রেতারা চান, আমরা আরও উন্নতি করি। ফলস্বরূপ সম্প্রসারণকে সামঞ্জস্যপূর্ণ করতে এবং সর্বোত্তম অপারেশনাল সিনার্জি অর্জনের জন্য আমাদের কিছু উৎপাদন কারখানাকে ঢাকার বাইরে স্থানান্তর করতে হচ্ছে। বিজ্ঞপ্তি