স্পোর্টস

ডি মারিয়ার জ্বলে ওঠা

ক্রীড়া ডেস্ক: এমনিতেই সেরা সময় পার করছেন। তারপরও গত পরশু নেইমার, এডিসন কাভানি ও কিলিয়ান এমবাপের মতো তারকা না থাকায় অ্যাঙ্গেল ডি মারিয়ার জন্য বড় পরীক্ষায় ছিল। শেষ পর্যন্ত ঘরের মাঠে দিজোঁর বিপক্ষে জ্বলে ওঠে জোড়া গোল করে নিজেকে আরেকবার প্রমাণ দেন এ আর্জেন্টিনা ফরোয়ার্ড। তাতে ৩-০ গোলে জিতে ফরাসি কাপের সেমিফাইনালে উঠে পিএসজি। স্বাগতিকদের তৃতীয় গোলটি করেন তমা মুনিয়ে।
দলের সেরা তিন তারকা না থাকলেও দিজোঁকে হারাতে তেমন একটা বেগ পেতে হয়নি পিএসজির। গত পরশু ঘরের মাঠে শুরুতেই ডি মারিয়ার গোলে এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা। মাঝমাঠের আগে থেকে ইউলিয়ান ড্রাক্সলারের দারুণ থ্রু পাস পেয়ে ডিবক্সের বাইরে থেকে চিপ শটে গোলরক্ষকের ওপর দিয়ে বল ঠিকানায় পাঠান আর্জেন্টাইন মিডফিল্ডার।
এদিকে ম্যাচের ২৮তম মিনিটে আবারও ড্রাক্সলার সহায়তায় ব্যবধান দ্বিগুণ করেন সেই ডি মারিয়া। জার্মান মিডফিল্ডারের পাস ধরে ডি-বক্সে ঢুকে আগুয়ান গোলরক্ষককে ফাঁকি দিয়ে ডান দিকে সতীর্থ ফরোয়ার্ড এরিক মাক্সিম চুপো-মোটিংয়ের উদ্দেশে বল বাড়ান ডি মারিয়া। কিন্তু মাঝপথে ঠেকিয়ে দেন এক ডিফেন্ডার। আলগা বল পেয়ে দুরূহ কোণ থেকে নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন দি মারিয়া। মৌসুমে এটি তার নবম গোল।
বিরতির পর ৭৬তম মিনিটে দিজোঁর জালে শেষ পেরেকটি ঠুকে দেন বেলজিয়ান ডিফেন্ডার মুনিয়ে। ডি-বক্সে এক জনকে কাটিয়ে কাটব্যাক করেন মোটিং। আর বাঁ পায়ের শটে কাছের পোস্ট দিয়ে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন তিনি। তাতে ৩-০ গোলের জয়ে ফরাসি কাপের সেমিফাইনালে উঠার আনন্দে মাতে পিএসজি।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..