প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

ডেঙ্গুতে তিন ও কভিডে একজনের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশে গত এক দিনে ১১ জনের কভিড শনাক্ত হয়েছে; তাদের মধ্যে ঢাকার বাসিন্দা মাত্র একজন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, গতকাল সকাল পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় এক হাজার ৫২১টি নমুনা পরীক্ষা করে ১১ নতুন রোগী শনাক্ত হয়। এই সময়ে মৃত্যু হয়েছে একজনের। এদিকে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে ৪৩৬ নতুন রোগী দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। একই সময়ে আরও তিন ডেঙ্গুরোগীর মৃত্যু হয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, কভিডে দিনে শনাক্তের হার হয়েছে শূন্য দশমিক ৭২ শতাংশ। আগের দিন এই হার ছিল শূন্য দশমিক ৭৯ শতাংশ। নতুন রোগীদের নিয়ে দেশে মোট শনাক্ত কভিড রোগীর সংখ্যা বেড়ে ২০ লাখ ৩৬ হাজার ৫৬৭ হয়েছে। মৃতের মোট সংখ্যা বেড়ে ২৯ হাজার ৪৩৩ রয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় ৬৮ কভিড রোগীর সেরে ওঠার তথ্য দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। তাদের নিয়ে এ পর্যন্ত সুস্থ হলেন ১৯ লাখ ৮৫ হাজার ৭৬২ জন।

গত একদিনে শনাক্ত রোগীদের মধ্যে কেবল একজন ঢাকা জেলার বাসিন্দা। এছাড়া টাঙ্গাইল, সিরাজগঞ্জ ও চট্টগ্রামে দুজন করে এবং ফরিদপুর, নারায়ণগঞ্জ, সিলেট ও কুষ্টিয়ায় একজন করে রোগী শনাক্ত হয়েছে।

পঞ্চাশোর্ধ্ব যে নারী মারা গেছেন, তিনি ছিলেন চট্টগ্রামের বাসিন্দা। একটি সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

অন্যদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে ৪৩৬ নতুন রোগী দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। একই সময়ে আরও তিন ডেঙ্গুরোগীর মৃত্যু হয়েছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম থেকে পাঠানো ডেঙ্গু-বিষয়ক এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে আরও ৪৩৬ নতুন রোগী দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এর মধ্যে ঢাকায় ২৫৩ ডেঙ্গু রোগী এবং ঢাকার বাইরে সারাদেশে ১৮৩ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

বর্তমানে সারাদেশে সর্বমোট এক হাজার ৮২৭ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। এর মধ্যে ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে এক হাজার ৬৭ ডেঙ্গু রোগী এবং ঢাকার বাইরে সারাদেশে ৭৬০ ডেঙ্গু রোগী ভর্তি রয়েছেন।

চলতি বছরের ১ জানুয়ারি থেকে ২৯ নভেম্বর পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা সর্বমোট ৫৬ হাজার ৯৩২। এর মধ্যে ঢাকায় ভর্তি রোগীর সংখ্যা সর্বমোট ৩৬ হাজার ২৬৮ এবং ঢাকার বাইরে সারাদেশে ভর্তি রোগীর সংখ্যা সর্বমোট ২০ হাজার ৬৬৪।

একই সময় সারাদেশে ছাড়প্রাপ্ত রোগীর সংখ্যা সর্বমোট ৫৪ হাজার ৮৫৫। এর মধ্যে ঢাকায় ছাড়প্রাপ্ত রোগীর সংখ্যা মোট ৩৫ হাজার ৫০ এবং ঢাকার বাইরে সারাদেশে ছাড়প্রাপ্ত রোগীর সংখ্যা মোট ১৯ হাজার ৮০৫।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে আরও তিনজনের মৃত্যু হয়। চলতি বছরে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মোট ২৫০ জনের মৃত্যু হয়।

গত বছরের ১ জানুয়ারি থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা ছিল ২৮ হাজার ৪২৯। একই সময়ে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন ২৮ হাজার ২৬৫ জন এবং ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১০৫ জন।