দিনের খবর প্রচ্ছদ প্রথম পাতা

ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা আবার বেড়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক: মাস তিনেক আগে ঢাকায় শুরু হওয়া ডেঙ্গুর প্রকোপ ক্রমশ বেড়েছে, আগস্টের মাঝামাঝিতে আগের মাসের তুলনায় দ্বিগুণ মানুষ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। ঈদের পর তিন দিন ডেঙ্গু নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা কমতে থাকলেও গত শনিবার তা আবারও বেড়েছে।
স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ইমারজেন্সি অপারেশনস অ্যান্ড কন্ট্রোল রুমের তথ্যমতে, গতকাল (রোববার) সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় এক হাজার ৭০৬ জন মানুষ ডেঙ্গু নিয়ে সারা দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এর আগে শনিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত এক হাজার ৪৬০ জন ডেঙ্গু নিয়ে দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। তার আগের ২৪ ঘণ্টায় ওই সংখ্যা ছিল এক হাজার ৭২১ জন।
এদিকে গতকাল সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় দুই হাজার ৩৯৪ রোগী চিকিৎসা শেষে হাসপাতাল ছেড়েছেন। আর বর্তমানে সারা দেশে সাত হাজার ১৬৮ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি রয়েছেন। এর মধ্যে ঢাকায় রয়েছেন তিন হাজার ৬৬৮ ও ঢাকার বাইরে তিন হাজার ৫০০ জন।
গতকাল ঢাকায় ৭৩৪ জন নতুন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হলেও হাসপাতাল ছেড়েছেন এক হাজার ১০৯ জন। ঢাকার বাইরে এ সংখ্যা যথাক্রমে ৯৭২ ও এক হাজার ২৮৫ জন।
তথ্যমতে, ঢাকায় গত মে মাসের শেষদিকে ডেঙ্গু দেখা দেয়। মশাবাহিত ওই রোগে আক্রান্ত হন ১৯৩ জন। পরের মাস জুনে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয় এক হাজার ৮৮৪ জন। জুলাইয়ে ওই সংখ্যা পৌঁছায় ১৬ হাজার ১৫৩ জনে। ওই সময় ডেঙ্গু নিয়ে চারদিকে আলোচনার প্রেক্ষাপটে ওই রোগের জীবাণুবাহী এডিস মশা নিধনে নানামুখী তৎপরতার কথা জানায় ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন। এরপর থেকে ধারাবাহিকভাবে বেড়েছে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা। আগস্টের প্রথম দিক থেকেই দিনে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা হাজারের ঘর ছাড়িয়ে দুই হাজারের বেশি হয়।
স্বাস্থ্য অধিদফতরের তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছরের শুরু থেকে ১৮ আগস্ট পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ডেঙ্গু নিয়ে ভর্তি হয়েছেন ৫৩ হাজার ১৮২ জন। এর মধ্যে আগস্টের কয়দিনেই প্রাণঘাতী ওই রোগে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৪ হাজার ৭২১ জন।
এদিকে সরকারি হিসেবে চলতি বছর ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে ৪০ জনের মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করা হলেও ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতাল ও জেলা চিকিৎসকদের কাছ থেকে অন্তত ১৫৪ জন মারা যাওয়ার তথ্য বিভিন্ন গণমাধ্যমে উঠে এসেছে।

 

সর্বশেষ..