ঢাকার আদালতে জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক: গাজীপুর সিটি করপোরেশনের (গাসিক) সাময়িক বরখাস্ত মেয়র জাহাঙ্গীর আলমের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়েছে। ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনালে গতকাল মামলাটি করা হয়। সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ওমর ফারুক বাদী হয়ে মামলাটি করেন। তিনি আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণাবিষয়ক উপকমিটির সদস্য।

ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ আসসামছ জগলুল হোসেন মামলাটি তদন্ত করে আগামী ৬ জানুয়ারির মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে পুলিশের অপরাধ ও তথ্য বিভাগকে (সিআইডি) নির্দেশ দিয়েছেন। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন ট্রাইব্যুনালের বেঞ্চ সহকারী শামীম আল মামুন।

আদালত সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে, মামলায় জাহাঙ্গীর আলমের বিরুদ্ধে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করার অভিযোগ আনা হয়েছে।

মামলায় বলা হয়েছে, জাহাঙ্গীর আলম বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও জাতির জনক সম্পর্কে চরম অসত্য বক্তব্য দিয়েছেন। তার বক্তব্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশ হয়। এর মধ্য দিয়ে তিনি ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে অপরাধ করেছেন।

জাহাঙ্গীর আলমের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ২৫ ও ২৯ ধারায় মামলা করা হয়েছে।

এর আগে ২৩ নভেম্বর রাজবাড়ীর আদালতে জাহাঙ্গীর আলমের বিরুদ্ধে মামলা হয়।

মুক্তিযুদ্ধ, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাদের নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করার অভিযোগ ওঠে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের তৎকালীন মেয়র জাহাঙ্গীর আলমের বিরুদ্ধে। এ-সংক্রান্ত একটি অডিও ক্লিপ গত সেপ্টেম্বরে নানা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়। অভিযোগ ওঠার প্রায় দুই মাস পর ১৯ নভেম্বর তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয় আওয়ামী লীগ।

জাহাঙ্গীর আলম গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠকে তাকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়। দলে তার প্রাথমিক সদস্যপদ বাতিল করা হয়। ২৫ নভেম্বর গাসিক মেয়র পদ থেকে জাহাঙ্গীর আলমকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন   ❑ পড়েছেন  ৯২০  জন  

সর্বশেষ..